অনলাইন শপিং,ফ্রিল্যান্সিং ও অন্যান্য কাজ করার জন্য এই ওয়েবসাইটে একটি একাউন্ট থাকতে হবে। একাউন্ট খোলা মানেই টাকা দিতে হবে এমন না। ফ্রিল্যান্সার অথবা বায়ার, এর যে কোন একটি চয়েজ করে একাউন্ট তৈরি করতে হবে।অথবা শপিং সেকশনের যে কোন প্রোডাক্টের এ্যাড টু কার্ট বাটনে ক্লিক করেও আপনি একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।সাইনআপ করুন এবং কাজ পোষ্ট করুন। ফ্রিল্যান্সারগণ কাজ খুজুন ও বিড করুন।একাউন্ট তৈরি হলে আপনি আপনার দেয়া ইউজার আইডি ও পাসওর্য়াড ব্যবহার করে সাইটে লগইন করতে পারবেন। You must have an account on this website for online shopping, freelancing and other activities. Opening an account does not mean that you have to pay. Freelancer or buyer, you have to create an account by choosing one of them. Or you can create an account by clicking on the add to cart button of any product in the shopping section.Sign up and post work. Freelancers find work and bid. Once the account is created, you can login to the site using your given user ID and password.

We have 138 guests and no members online

All Posts

3417 posts found

Deshi Group
16 September 2021, 11:14

প্রধান প্রকৌশলী হওয়ার যোগ্যতায় পরিবর্তন

প্রধান প্রকৌশলী হওয়ার যোগ্যতায় পরিবর্তন
একটি পদের যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা নির্ধারণে ভয়াবহ জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে। একই সঙ্গে এ জালিয়াতি ঘটেছে অর্থ মন্ত্রণালয় ও নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ে।


বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) নতুন সৃষ্ট ‘ডিজাইন ও মনিটরিং’ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী পদে পদোন্নতি পাওয়ার যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা নির্ধারণে এমনটি হয়েছে।

জালিয়াতির মূল ঘটনা ঘটেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন অনুবিভাগে। অপরদিকে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের টিএ শাখায় এ সংক্রান্ত ফাইল থেকে মূল নথি গায়েব করা হয়। সেখানে স্বাক্ষর জালিয়াতির তিনটি পৃষ্ঠা সংযুক্ত করা হয়েছে।

টানা নয় মাস তদন্তে এসব ঘটনা বেরিয়ে এসেছে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের একটি তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে। তবে ওই প্রতিবেদনে কারা সরাসরি জড়িত তাদের নাম চিহ্নিত করতে পারেননি কমিটির সদস্যরা। বের হয়নি নেপথ্যে থাকা কর্মকর্তাদের নামও। সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

আরও জানা গেছে, এমন জালিয়াতির ঘটনায় মাশুল দিতে হচ্ছে সরকারকে। ওই ঘটনায় মাঝপথে আটকে আছে বিআইডব্লিউটিএর ১৫০টি ড্রেজার ও সহায়ক জলযানের ৬৭৭টি পদ সৃষ্টির কার্যক্রম।

লোকবল সংকট থাকায় দুই হাজার ৭৯২ কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি প্রকল্পের আওতায় কেনা ১৫০টি জলযান সঠিকভাবে পরিচালনা করতে পারছে না সংস্থাটি। একটি বড় ড্রেজার পরিচালনায় ২০ জন জনবল অনুমোদন পেলেও বেশ কয়েকটি একজন, দুজন করে পাহারাদার হিসেবে রাখা হয়েছে।

অনেক নৌযান ঠিকাদারদের ডকইয়ার্ডে বছরের পর বছর পড়ে আছে। আবার পুরোনো ড্রেজার ও নৌযান থেকে লোকবল সরিয়ে নতুন জলযানে যুক্ত করা হয়েছে। ফলে এসব নৌযান নির্মাণে সরকারের ব্যয় করা টাকার সুফল মিলছে না।

নৌপরিবহণ সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ্ উদ্দিন চৌধুরী যুগান্তরকে বলেন, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পেয়েছি। ওই প্রতিবেদনে দেখা গেছে, জনবল নিয়োগের সঠিক প্রস্তাবটি নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো হয়েছে।

অর্থ বিভাগের কোনো এক পর্যায় থেকে যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার বিষয়টি পরিবর্তন করা হয়েছে। কোথায় বা কারা এ পরিবর্তন করেছে তা নির্ণয় করা যায়নি। জনবল অনুমোদন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তদন্ত কার্যক্রমের সঙ্গে জনবল অনুমোদনের বিষয়টি জড়িত। জনবল অনুমোদনের প্রক্রিয়া চালু রয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরে জনবল সংকট থাকায় অনেক ড্রেজার, টাগবোটসহ অন্যান্য জলযান বসে আছে বলে জানিয়েছেন বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক।

তিনি যুগান্তরকে বলেন, পর্যাপ্ত জনবল না থাকায় বেশকিছু ড্রেজার ও সহায়ক জলযান বসে আছে। অথচ বিভিন্ন স্থানে নাব্য সংকট দূর করতে এসব ড্রেজারের চাহিদা রয়েছে।

এতে সংস্থার কাজের গতি মন্থর হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, যেসব ড্রেজার বা জলযান চলছে, সেগুলো প্রয়োজনের তুলনায় কমসংখ্যক জনবল রয়েছে। এতে ওই জলযানের লোকজনকে অতিরিক্ত খাটতে হচ্ছে।

এতে তারা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। তারা জলযান থেকে অন্যত্র বদলি হতে তদবির করছেন। সংস্থাটির চেয়ারম্যান জানান, লোকবল সংকটের কারণে ড্রেজারসহ জলযানগুলোর রক্ষণাবেক্ষণ সঠিকভাবে হচ্ছে না। এতে আয়ুষ্কালও কমে যাচ্ছে।

দুটি শিপইয়ার্ডের মালিকের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, তাদের ডকইয়ার্ডে নির্মাণ করা বিআইডব্লিউটিএর জাহাজ অলস বসে আছে। জাহাজের ইঞ্জিন সচল রাখতে নিয়মিত চালু করার কথা থাকলেও তা নিয়মিত করা হয় না। ডকইয়ার্ডের লোকজন দিয়ে এসব নৌযান পাহারা দেওয়া হয়।

ঘটনার সূত্রপাত যেভাবে : ৭৪৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ‘১০টি ড্রেজারসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি/যন্ত্রপাতি সংগ্রহ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৭৬টি জলযান কেনা হয়। দুই হাজার ৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ‘২০টি ড্রেজারসহ সহায়ক যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জামাদি সংগ্রহ’ প্রকল্পের আওতায় ১১২টি জলযান কেনা হয়।

দুই প্রকল্পের আওতায় কেনা ১৮৮টি জলযানের বিপরীতে ১০ ড্রেজার প্রকল্পের ৩৮টি জলযানের ৩১২ জন জনবল অনুমোদন পেয়েছে সংস্থাটি। বাকি ১৫০টি জলযান ও ৯টি ড্রেজার বেইজের জন্য ২০১৯ সালের ২৪ এপ্রিল এক হাজার ৬০১টি পদ সৃষ্টির সুপারিশ করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

ওই প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হলে পদ সংখ্যা কমিয়ে ৬৭৭টি পদ সৃষ্টির সম্মতি দেয় অর্থ বিভাগের রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান-১ শাখা। পরে তা বেতন গ্রেড নির্ধারণ করে বাস্তবায়ন অনুবিভাগ।

এর পরই দেখা যায়, প্রধান প্রকৌশলী (ডিজাইন ও মনিটরিং) পদের যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার শর্তে পরিবর্তন এসেছে। এতে নৌ-প্রকৌশলী/উপব্যবস্থাপক এর সঙ্গে উপপ্রধান প্রকৌশলী শব্দ যুক্ত করা হয়।

এ পরিবর্তনের কারণে প্রধান প্রকৌশলী পদে যান্ত্রিক ও নৌ-প্রকৌশল পুলের কর্মকর্তাদের পাশাপাশি পুরকৌশল পুলের কর্মকর্তাদের এ পদে পদোন্নতি পাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়।

এরপরই ২০২০ সালের ২১ অক্টোবর তৎকালীন অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (মেরিন) মো. আতাহার আলী সরদার, পরে সহকারী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) মাহাবুবুল ইসলাম পাটোয়ারীসহ কয়েকজন প্রতিকার চেয়ে নৌ মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন।

পরে কয়েকজন তাদের আবেদন প্রত্যাহার করেন। মাহাবুবুল ইসলাম পাটোয়ারীর আবেদন আমলে নিয়ে একই বছরের ২৬ নভেম্বর নৌ মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব ড. আ.ন.ম. বজলুর রশীদকে আহ্বায়ক ও উপসচিব মো. মনিরুজ্জামান মিঞাকে সদস্য করে দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়। ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। কমিটি নয় মাস পর গত আগস্ট মাসে প্রতিবেদন জমা দেয়।

যা আছে তদন্ত প্রতিবেদনে : পাঁচ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, বাস্তবায়ন অনুবিভাগে বেতন গ্রেড নির্ধারণে পদোন্নতির যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা পরিবর্তন করা হয়েছে।

কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় থেকে প্রস্তাবিত নিয়োগ যোগ্যতার সঙ্গে অর্থ বিভাগের নির্ধারিত নিয়োগ যোগ্যতার গরমিল পাওয়া গেছে। তবে অর্থ বিভাগ থেকে চাহিদা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় নথি না পাওয়ায় কারা জড়িত তা খুঁজে পায়নি কমিটি।

জালিয়াতির এ তথ্য উল্লেখ করে গত সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) অর্থবিভাগের সিনিয়র সচিবের কাছে একটি চিঠি দিয়েছে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়। ওই চিঠিতে এ ঘটনায় তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়েও জালিয়াতির তথ্য উঠে এসেছে। এতে উল্লেখ করা হয়েছে, জনবল সৃষ্টি করতে বিআইডব্লিউটিএর প্রস্তাবটি স্পাইরাল আকারে ছিল।

ওই স্পাইরাল বাইন্ডিংয়ের তিনটি পাতায় সংস্থাটির চেয়ারম্যান ও দুজন কর্মকর্তার স্বাক্ষর জালিয়াতি করে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। স্পাইরাল বাইন্ডিংয়ে ওই তিনটি পৃষ্ঠা আলাদা করে পিন দিয়ে আটকিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এমনকি এ মন্ত্রণালয়ের টিএ শাখার তৎকালীন উপসচিব মো. আনোয়ারুল ইসলামের সত্যায়ন করার বিষয়টিও জালিয়াতি করা হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় থেকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান-১ শাখায় যে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে সেই অফিস কপি টিএ শাখার ফাইলে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় জড়িত কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারীর নাম উল্লেখ করা হয়নি প্রতিবেদনে। তবে জালিয়াতির জন্য টিএ শাখার তৎকালীন দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী ও প্রশাসনিক কর্মকর্তার ওপর দায় চাপিয়ে ব্যবস্থা নিতে নৌ মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন অধিশাখায় অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এক জালিয়াতিতে আটকে আছে ১৫০ জলযানের জনবল : খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নয় মাস ধরে তদন্ত চলতে থাকায় অর্থ মন্ত্রণালয় যে ৬৭৭টি পদ সৃষ্টির প্রস্তাব অনুমোদন করে তা সচিব কমিটিতে পাঠানো হয়নি।

এ কারণে এসব জনবল নিয়োগ আটকে আছে। জোড়াতালি দিয়ে ড্রেজারসহ সহায়ক জলযান পরিচালনা করছে বিআইডব্লিউটিএ। বংশী নামের ড্রেজারে ২০ জন জনবলের প্রয়োজন থাকলে তা পাহারা দেওয়ার জন্য একজনকে দেওয়া হয়েছে।

একইভাবে বলেশ্বর ও বাঙ্গালী ড্রেজারে দুইজন করে, বিশখালী ও বরাক ড্রেজারে তিনজন করে জনবল রয়েছে। এ কমসংখ্যক জনবল দিয়ে ড্রেজার পরিচালনা করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট একাধিক কর্মকর্তা।
0 Share Comment
Deshi Group
16 September 2021, 11:12

ইমো হ্যাকার চক্রের সদস্য রাকিবুল গ্রেফতার

ইমো হ্যাকার চক্রের সদস্য রাকিবুল গ্রেফতার
রাজশাহীর বাঘায় ইমো হ্যাকার চক্রের সদস্য রাকিবুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে তাকে আটক করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা দেয় পুলিশ।


রাকিবুল উপজেলার উপজেলার মহদিপুর উত্তর আতারপাড়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে।

পুলিশ জানায়, উপজেলার মহদিপুর উত্তর আতারপাড়া গ্রামের মাঠের মধ্যে মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে একটি ফাঁকা ঘরে রাকিবুলসহ ৪/৫ জন মোবাইল নিয়ে ইমো হ্যাক করার পরিকল্পনা ও মাদক সেবন করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাঘা থানার পুলিশ অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে গেলেও গ্রেফতার করা হয় রাকিবুলকে। এ সময় তাকে তল্লাশি করে ৮০ হাজার টাকা, ১৫টি সিম কার্ড, ৩টি মোবাইল, ৫ গ্রাম হেরোইন, ৪ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়। জব্দকৃত দুটি সিমে বিকাশ খোলা রয়েছে।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বিকাশ থেকে টাকা বের করাটা হ্যাকিং নয়, এটা এক ধরনের ডাকাতি। এটি নির্মূল অভিযান চলছে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নামে মামলা দিয়ে বুধবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
0 Share Comment
Deshi Group
16 September 2021, 11:11

তিনবারের বেশি ঋণ পুনঃতপশিল করলে ইচ্ছাকৃত খেলাপি

তিনবারের বেশি ঋণ পুনঃতপশিল করলে ইচ্ছাকৃত খেলাপি
ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান এখন থেকে আর কোনো ঋণ তিনবারের বেশি পুনঃতপশিল করতে পারবে না। আর তৃতীয় দফা পুনঃতপশিলের পরও কোনো গ্রাহক ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হলে তিনি স্বভাবজাত বা ইচ্ছাকৃত খেলাপি হিসাবে বিবেচিত হবেন।


এছাড়া পুনঃতপশিল করা ঋণের শুধু যেটুকু আদায় হবে, তার বিপরীতে সুদ আয় খাতে নেওয়া যাবে। মঙ্গলবার রাত ১০টার পর আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জন্য ঋণ পুনঃতপশিলের এমন একটি কঠোর নীতিমালা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

নীতিমালার শুরুতে বলা হয়েছে, গ্রাহকের ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা যাচাই না করেই বারবার ঋণ পুনঃতপশিল করছে বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান। পরিশোধসূচি পুনর্নির্ধারণ এবং যথাযথভাবে পুনঃতপশিল প্রক্রিয়া অনুসরণ না করায় এসব প্রতিষ্ঠানের আদায়ের প্রকৃত চিত্র প্রতিফলিত হচ্ছে না। এখন থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো কেবল বিরূপমানে শ্রেণীকৃত (নিুমান, সন্দেহজনক ও ক্ষতিজনক) ঋণ পুনঃতপশিল করতে পারবে। ঋণ নিয়মিত করার প্রতি পর্যায়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে নির্ধারিত হারে ডাউনপেমেন্ট নিতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলেছে, কোনো মেয়াদি ঋণ নিুমান থাকা অবস্থায় প্রথম দফায় ৪৮ মাস, দ্বিতীয় দফায় ৩৬ মাস ও তৃতীয় দফায় ২৪ মাসের জন্য পুনঃতপশিল করা যাবে। আর সন্দেহজনক বা মন্দমানে শ্রেণীকৃত অবস্থায় পুনঃতপশিলের ক্ষেত্রে প্রথম দফায় ৩৬ মাস, দ্বিতীয় দফায় ২৪ মাস ও তৃতীয় দফায় ১৮ মাসের জন্য পুনঃতপশিল করা যাবে। স্বল্পমেয়াদি ঋণের মেয়াদোত্তীর্ণ তারিখ বা সর্বশেষ কিস্তি পরিশোধের পর প্রথম দফায় সর্বোচ্চ ১২ মাসের জন্য পুনঃতপশিল করা যাবে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফায় ৬ মাস করে নিয়মিত করতে পারবে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো।

ডাউনপেমেন্টের ক্ষেত্রে বলা হয়েছে, প্রথম দফা ঋণ পুনঃতপশিলের ক্ষেত্রে মেয়াদি ও স্বল্পমেয়াদি উভয় ক্ষেত্রে মেয়াদোত্তীর্ণ কিস্তির ন্যূনতম ১৫ শতাংশ বা মোট বকেয়ার ১০ শতাংশের মধ্যে যা কম, সেই পরিমাণ অর্থ পরিশোধ করতে হবে। দ্বিতীয় দফায় মেয়াদোত্তীর্ণ কিস্তির ৩০ শতাংশ বা মোট বকেয়ার ২০ শতাংশের মধ্যে যা কম, তা দিতে হবে। আর তৃতীয় দফায় মেয়াদোত্তীর্ণ কিস্তির ৫০ শতাংশ বা মোট বকেয়ার ৩০ শতাংশের মধ্যে যা কম, তা পরিশোধ করতে হবে।

এ উপায়ে নিয়মিত করা ঋণ মাসিক বা ত্রৈমাসিক কিস্তির মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে। পুনঃতপশিল করা ঋণের অনাদায়ি কিস্তি ছয়টি মাসিক কিস্তি বা দুটি ত্রৈমাসিক কিস্তির সমান হলে তা ক্ষতিজনক মানে শ্রেণীকরণ করতে হবে। এতে বলা হয়েছে, প্রতিটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে পরিচালনা পর্ষদ অনুমোদিত ঋণ পুনঃতপশিলের একটি নীতিমালা থাকতে হবে। সেখানে এমন সব শর্ত দিতে হবে, যা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এই নীতিমালার চেয়ে কোনোভাবে সহজ হবে না। পুনঃতপশিলের আগে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্রেডিট কমিটি লিখিত প্রতিবেদনের মাধ্যমে যৌক্তিকতা ও প্রভাব তুলে ধরবে।

সংশ্লিষ্ট গ্রাহকের ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা যাচাইয়ের জন্য তার নগদ প্রবাহ বিবরণী, নিরীক্ষিত স্থিতিপত্র, আয়-ব্যয় ও অন্যান্য আর্থিক বিবরণী পর্যালোচনা করতে হবে। একজন গ্রাহকের ডাউনপেমেন্টর অর্থ জমা হওয়ার এক মাসের মধ্যে পুনঃতপশিলের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তবে কিস্তি হিসাবে জমা হওয়া অর্থ কোনোভাবেই ডাউনপেমেন্ট বাবদ জমা দেখানো যাবে না।
0 Share Comment
Deshi Group
16 September 2021, 11:10

সৌদি সৈকতে নারীদের ব্যক্তিগত ক্লাব

সৌদি সৈকতে নারীদের ব্যক্তিগত ক্লাব
সৌদি আরবের পূর্বপ্রদেশের পর্যটন শহর আল খোবার। প্রাচীন জলসীমা এবং ফরাসি উপসাগরীয় সৈকতের জন্য খুবই পরিচিত জনপদ। এখানেই গড়ে উঠেছে সৌদি নারীদের প্রথম ব্যক্তিগত সৈকত ক্লাব-দ্য ১৮০ বিচ ক্লাব সমুদ্র।


ক্লাবের যাত্রা শুরু ২০২০ সালে। নারীদের সাঁতার ক্লাব নামে পরিচিত দ্য ১৮০ বিচ ক্লাবে বিস্ময়কর সব অফার রয়েছে নারীদের জন্য।

ম্যাসেজ, পেডিকিউর, বিচ হেয়ারস্টাইলসহ স্পা সবই আছে। রয়েছে ইনডোর লাউঞ্জ এলাকা। খাদ্য ও পানীয়, ডাইনিং, নীল বাজার, ডিজে, লাইভ শোর অত্যাধুনিক ব্যাবস্থা আছে সেখানে। ৪৫ হাজার বর্গমিটার জায়গাজুড়ে ৪শটি পর্যন্ত সানবেড বসানো হয়েছে। যেখানে শুয়ে শুয়ে রোদ্রস্নান করেন নারীরা।

সৌদির পাবলিক সৈকতগুলোতে খুব রক্ষণশীল পোশাক পরতে হয় নারীদের। কিন্তু এখানে সে স্বাধীন। দ্য ১৮০ বিচে ক্যামেরা অনুমোদিত নয়।

ক্লাবে ফোনের ব্যবহার সীমাবদ্ধ। নারীদের গোপনীয়তা নিশ্চিত করতে পুরুষের প্রবেশাধিকার সাত বছরের কম বয়সি ছেলেদের মধ্যে সীমাবদ্ধ। দূরত্বও হাতে নাগালে। শহর থেকে মাত্র ১১ মিনিটের পথ।

‘বোহেমিয়ান-ধাঁচে’র সজ্জা, বিভিন্ন রেস্তোরাঁ, খাবারের ট্রাক, ক্যাফে, দোকান এবং ওয়াটার স্পোর্টসসহ কায়াকিং, প্যাডেল-বোর্ডিং এবং স্নোকারেলিংয়ের ব্যবস্থা আছে। আরব নিউজ।
0 Share Comment
Deshi Group
16 September 2021, 11:07

অবশেষে ছেলের বাবার নাম জানালেন অভিনেত্রী নুসরাত

অবশেষে ছেলের বাবার নাম জানালেন অভিনেত্রী নুসরাত
অভিনেত্রী নুসরাত জাহান মা হওয়ার পর থেকে অভিনন্দনের পাশাপাশি যে প্রশ্নের মুখোমুখি হচ্ছিলেন বারবার— সদ্যজাত সন্তানের বাবা কে?


নিখিল জৈনের সঙ্গে তার বিচ্ছেদ ঘটেছে অনেক আগেই। নিখিলও এই সন্তানের পিতৃত্ব দাবি করেননি।

সংসদ সদস্য হয়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েও একই প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছে বারংবার। তবে সব প্রশ্নের জবাব বিভিন্নভাবে এড়িয়ে গেছেন তিনি। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে নুসরাত বলেন, ‘ছেলের বাবা জানে বাবা কে’!

এরই মধ্যে গুঞ্জন ওঠে প্রেমিক অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত নুসরাতের ছেলের বাবা। ছেলের নাম ঈশান রাখায় সেই গুঞ্জনের পালে জোর হাওয়া বইতে থাকে।

অবশেষে ছেলের পিতৃপরিচয় প্রকাশ্যে এলো। এ নিয়ে অভিনেত্রী সরাসরি মুখ না খুললেও কলকাতা পৌরসভার ওয়েবসাইটে সেই তথ্য মিলেছে।

বুধবার রাত সাড়ে ৯টার পর কলকাতা পৌরসভার স্বাস্থ্য বিভাগ জন্ম নিবন্ধনপত্রের ওয়েবসাইট আপডেট করে।

সেখানে দেখা গেল— নুসরাতের ছেলের নাম ঈশান জে দাশগুপ্ত। বাবার নামের পাশে লেখা দেবাশিষ দাশগুপ্ত ওরফে যশ! নিচে মায়ের নামের পাশে নুসরাত জাহান রুহি।

অর্থাৎ নুসরাত তার ছেলে ঈশানের জন্ম নিবন্ধনের জন্য যেসব তথ্য দিয়েছেন, তাতে বাবার নাম হিসেবে যশের নামই দেওয়া হয়েছে। বাবার পদবি ছেলের পদবি হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে।

পৌরসভার তথ্য বাতায়ন বলছে, অনলাইনে ঈশানের জন্ম নিবন্ধনপত্রের রেজিস্ট্রেশন নম্বর ১৬২৩।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:13

Khulna Shipyard Limited Job Circular 2021

0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:12

Ad-din Foundation Job Circular 2021

Ad-din Foundation Job Circular 2021
Source: Prothom Alo, 14 September 2021
Application Deadline: 23 September 2021
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:11

Department of Architecture

0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:10

Pran Group Driver Job Circular 2021

Pran Group Driver Job Circular 2021
Source: Bangladesh Pratidin, 02 September 2021
Interview Date: 07-23 September 2021
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:09

Chittagong Veterinary & Animal Sciences University Job Circular 2021

Chittagong Veterinary & Animal Sciences University Job Circular 2021
Source: Daily Jugantor, 14 September 2021
আবেদনের সময়সীমাঃ ০৪ অক্টোবর ২০২১
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:08

TECHEDU Job Circular 2021

0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:07

The Security Printing Corporation (Bangladesh) Ltd Job Circular 2021

The Security Printing Corporation (Bangladesh) Ltd Job Circular 2021
Source: Bangladesh Pratidin, 14 September 2021
Application Deadline: 12 October 2021
দি সিকিউরিটি প্রিন্টিং করপোরেশন (বাংলাদেশ) লিঃ
http://www.spcbl.org.bd/
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:06

Abul Khair Group Job Circular 2021

Abul Khair Group Job Circular 2021
Source: Dainik Azadi, 15 September 2021
Interview Date: From 17 September to 18 September 2021
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:05

Ispahani Public School and College Job Circular 2021

Ispahani Public School and College Job Circular 2021
Source: Ittefaq, 15 September 2021
Application Deadline: 28 September 2021
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:04

Department of Narcotics Control Job Circular 2021

Department of Narcotics Control Job Circular 2021
Source: Bangladesh Observer, 15 September 2021
Application Deadline: 14 October 2021
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:02

২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক প্রফেশনাল ভর্তি বিজ্ঞপ্তি

0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 07:00

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিলিমিনারী টু মাস্টার্স (নতুন সিলেবাস) পরীক্ষার সময়সূচী ২০১৮

0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 06:57

দশ হাজারের বেশি ‘নগদ’ অ্যাকাউন্ট পুনঃসচল

দশ হাজারের বেশি ‘নগদ’ অ্যাকাউন্ট পুনঃসচল


অস্বাভাবিক ও অসমাঞ্জস্যপূর্ণ লেনদেনের পরিপ্রেক্ষিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্থিতি হোল্ড হয়ে যাওয়া ‘নগদ’ অ্যাকাউন্টের মধ্য থেকে কয়েক দফায় আরও সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি অ্যাকাউন্টের স্থিতি পুনঃসচল করেছে ‘নগদ’ কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে পুনঃসচল হওয়া অ্যাকাউন্ট সংখ্যা দশ হাজার ছাড়িয়ে গেল।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে কয়েক দফা নিরবচ্ছিন্ন যাচাই-বাছাই ও নিবিড় পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে সন্তোষজনক ফলের ভিত্তিতে ধাপে ধাপে অ্যাকাউন্টগুলো পুনরায় সচল করা হচ্ছে। একইভাবে অতি অল্প সময়ের মধ্যে পর্যায়ক্রমে গ্রাহকদের দেওয়া তথ্য মার্চেন্টের সঙ্গে ক্রস-ভ্যারিফিকেশনের মাধ্যমে সন্তোষজনক ফলের ভিত্তিতে বাকি অ্যাকাউন্টগুলোর স্থিতি পুনঃসচল করা হবে।

সাম্প্রতিক সময়ে কতিপয় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম সংশ্লিষ্ট অসামঞ্জস্যপূর্ণ লেনদেনের লক্ষণ পরিলক্ষিত হলে গ্রাহকের নিরাপত্তা সুনিশ্চিতের জন্য ‘নগদ’-এর অত্যাধুনিক প্রযুক্তি বলে কিছু অ্যাকাউন্টের স্থিতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে হোল্ড হয়ে যায়।

অনতিবিলম্বে ‘নগদ’ কর্তৃপক্ষ বিষয়টি বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিটসহ (বিএফআইইউ) সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। পরবর্তীতে কর্তৃপক্ষের সাথে চলমান আলোচনা ও পরামর্শের ভিত্তিতে পুঙ্খানুপুঙ্খ যাচাই-বাছাই ও নিরবচ্ছিন্ন নিরীক্ষা প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে সন্তোষজনক ফলাফলের ভিত্তিতে ধাপে ধাপে পুনঃসচল হতে শুরু করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্থিতি ‘হোল্ড’ হওয়া অ্যাকাউন্টগুলো।

ইতোমধ্যে পুনরায় চালু হওয়া অ্যাকাউন্টগুলোতে আগের মতোই স্বাভাবিক নিয়মে সব ধরনের লেনদেন করাসহ ‘নগদ’-এর দারুণ সব সেবা উপভোগ করতে পারছেন গ্রাহকেরা। ‘নগদ’ সব সময়েই সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করছে। মানুষের অর্থ যাতে বিন্দুমাত্র ঝুঁকিতে না পড়ে, সে বিষয়ে ‘নগদ’ দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ২৬ মার্চ উদ্বোধনের পর থেকে মোবাইল আর্থিক সেবা ‘নগদ’ সাধারণ মানুষের লেনদেনকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে তুলে আনতে কাজ করছে। গত আড়াই বছরে ‘নগদ’ প্রায় সাড়ে ৫ কোটি গ্রাহক পেয়েছে। একই সঙ্গে দৈনিক লেনদেন ৭০০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে।
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 06:56

তেজগাঁও মহিলা কলেজে বিবিএ কোর্সে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি

0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 06:55

শীর্ষ করদাতার সম্মাননা পেল ডাচ্-বাংলা ব্যাংক

শীর্ষ করদাতার সম্মাননা পেল ডাচ্-বাংলা ব্যাংক


জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ডাচ্-বাংলা ব্যাংককে ২০২০-২০২১ অর্থবছরের অন্যতম শীর্ষ করদাতা হিসেবে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করেছে। ব্যাংকিং ক্যাটাগরির কনভেনশনাল ব্যাংকগুলোর মধ্যে করদানে শীর্ষস্থান অর্জন করায় ডাচ-বাংলা ব্যাংক এ সম্মাননা অর্জন করে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর জনাব ফজলে কবির প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে গতকাল মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানে ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এন্ড সিইও আবুল কাশেম মো: শিরিনের হাতে সম্মাননা সনদটি তুলে দেন। এনবিআরের বৃহৎ করদাতা ইউনিট এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রাহমাতুল মুনিম, এনবিআর সদস্য (করনীতি) আলমগীর হোসেন এবং সদস্য (কর প্রশাসন ও মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনা) মোহাম্মদ গোলাম নবী। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন করদাতা ইউনিটের কর কমিশনার মো. ইকবাল হোসেন।
0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 06:54

বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়ার বিনিয়োগের পথ সুগম
করতে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বিষয়ক কাঠামো চুক্তি হয়েছে।
বুধবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক ভার্চুয়াল
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ও অষ্ট্রেলিয়ার মধ্যে এই ‘ট্রেড অ্যান্ড ইনভেষ্টমেন্ট
ফ্রেমওয়ার্ক অ্যারেঞ্জমেন্ট’ বা টিফা স্বাক্ষরিত হয়।


বাংলাদেশের পক্ষে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু
মুনশি সরাসরি এবং অষ্ট্রেলিয়ার পক্ষে সেদেশের বাণিজ্য, পর্যটন ও বিনিয়োগ
বিষয়ক মন্ত্রী ডান টিহান চুক্তিতে সই করেন।


অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ
বিনিয়োগকারীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ স্থান। টিফা স্বাক্ষরের ফলে বাংলাদেশে
অষ্ট্রেলিয়ার বিনিয়োগ ও বাণিজ্য বাড়বে।


বাংলাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে
তোলার প্রসঙ্গ ধরে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, সরকার দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট
করার জন্য এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিশেষ সুযোগ-সুবিধার প্যাকেজ ঘোষণা করেছে।
বিনিয়োগের ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত সেবা দেওয়া সহজ করা হয়েছে।


“বাংলাদেশ প্রায় ১৭ কোটি মানুষের একটি বড় বাজার। অস্ট্রেলিয়ার বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে লাভবান হবেন।”


২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে বাংলাদেশ
অস্ট্রেলিয়ায় ৮০৪ দশমিক ৬৩ মিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছিল, একই সময়ে
আমদানি করেছিল ৫৯৬ দশমিক ৭০ মিলিয়ন ডলারের পণ্য। তবে কোভিড মহামারীর কারণে
গত দুই বছরে দুই দেশের বাণিজ্য কিছুটা কমে এসেছে।


অস্ট্রেলিয়ার মন্ত্রী ডান টিহান বলেন, টিফা স্বাক্ষরের মাধ্যমে উভয় দেশের বিনিয়োগ ও বাণিজ্য বাড়বে।


বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের পাশাপাশি আইসিটি, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং, প্লাস্টিকসহ বেশকিছু খাতকে ‘সম্ভাবনাময়’ হিসেবে বর্ণনা করেন তিনি।


ভার্চুয়াল বক্তব্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু
শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার
সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছাও জানান টিহান।


বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, অস্ট্রেলিয়া গত ২০০৩
সালে থেকে বাংলাদেশকে ডিউটি ফ্রি এবং কোটা ফ্রি বাণিজ্য সুবিধা দিয়ে আসছে।
আগামী ২০২৬ সালে এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পরও অস্ট্রেলিয়া এসব বাণিজ্য
সুবিধা অব্যাহত রাখবে।


ঢাকায় অষ্ট্রেলিয়ার হাই কমিশনার জেরেমি
ব্রুয়ার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অস্ট্রেলিয়ায়
বাংলাদেশের হাই কমিশনার মোহাম্মদ শফিউর রহমান ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে
যুক্ত ছিলেন।


এছাড়া বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ,
অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) হাফিজুর রহমান, অষ্ট্রেলিয়ার ডেপুটি হাই কমিশনার
নার্ডিয়া সিম্পসন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


0 Share Comment
National/International News Group
16 September 2021, 06:54

সেপ্টেম্বরের ২২ তারিখের মধ্যেই ক্যাম্পাস
খোলার তারিখ ঘোষণা এবং ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হল খুলে
দেওয়াসহ তিন দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের
শিক্ষার্থীরা। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের
নতুন কলা ভবন থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি
পুরাতন রেজিস্ট্রার ভবন, পরিবহন চত্বর ঘুরে নতুন রেজিস্ট্রার ভবনে গিয়ে শেষ
হয়।


বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন
তারা। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেন শিক্ষার্থীরা।
ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলমের অনুপস্থিতিতে উপাচার্যের একান্ত
সচিব সানোয়ার হোসেন শিক্ষার্থীদের থেকে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।
স্বারকলিপিতে ৩টি দাবি তুলে ধরেন তারা। তাদের অপর দাবিটি হল-
বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যালে টিকার বুথ স্থাপন করে সকল শিক্ষার্থীর ভ্যাকসিন
নিশ্চিত করতে হবে।


সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সাধারণ
সম্পাদক আবু সাইদের সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ ছাত্র
ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল রনি বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় খোলার
প্রস্তুতির ক্ষেত্রে অন্যান্য সব বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে সবচেয়ে পিছিয়ে আছে
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। আমরা জানি ইউজিসি সব বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে
টিকা গ্রহণের তথ্য চেয়েছে। কিন্তু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় তথ্য
পাঠায়নি। ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা না হলে আমরা বুঝে নেবো
ভ্যাকসিন কোনো ইস্যু নয়। বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখার অন্য কোনো কারণ আছে।
অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার তারিখ ঘোষণা করা না হলে কঠোর অন্দোলনের ডাক
দেওয়া হবে।” 


প্রসঙ্গত, এর আগে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা
দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৬ আগস্ট দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রায়হান
রাইন, ২৯ আগস্ট পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জামাল উদ্দিন রুনু এবং ১২
সেপ্টেম্বর নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মানস চৌধুরী প্রতীকী ক্লাস নিয়েছেন।


এদিকে, বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর)
বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দাবিতে দুপুর ১২টায় সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ভবনের নিচতলায়
প্রতীকী ক্লাস নেবেন অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও
বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আনু মুহাম্মদ।


এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত
রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ বলেন, “আজ বিকেলে প্রশাসনিক মিটিং আছে, সেখানে
বিশ্ববিদ্যালয় খোলার ব্যাপারে কিভাবে প্রস্তুতি নেওয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা
করা হবে। শিগগির সিন্ডিকেট সভা আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে। তবে
তার আগে আমাদের কিছু প্রস্তুতির দরকার আছে।”


গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মত বন্ধ রয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। সম্প্রতি
প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেওয়া হলেও
বন্ধ রয়েছে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়। তবে কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে
শিক্ষার্থীরা এরই মধ্যে হলে অবস্থান করছেন। এছাড়া কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে হল
খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।


0 Share Comment
Deshi Group
15 September 2021, 19:05

দেশের
পর্যটন শিল্পের বিকাশে ২০২৩ সালের শেষের দিকে তিনটি অত্যাধুনিক
প্যাসেঞ্জার ক্রুজ ভেসেল নৌ বহরে যুক্ত হবে বলে জানিয়েছেন নৌ পরিবহন
প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, অত্যাধুনিক প্যাসেঞ্জার
ক্রুজ ভেসেলগুলোতে থাকবে থ্রিডি সিনেমা হল, সুইমিংপুলসহ সব আধুনিক
ব্যবস্থা।

যা বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পকেই প্রসারিত করবে না বরং অর্থনীতিতেও বিশেষ ভূমিকা রাখবে।


বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে গণমাধ্যম
কেন্দ্রে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) এর সংলাপে
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন,
বিএসআরএফ সভাপতি তপন বিশ্বাস এবং সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হক।


নৌ পরিবহণ প্রতিমন্ত্রি বলেন, ১৫০ আসন
বিশিষ্ট ক্রুজে থাকবে বিনোদনের সব ব্যবস্থা। থ্রিডি সিনেমা হল, জিম, সুইমিং
পুল রাখা হবে। যাতে একজন পর্যটক ১০-১৫ দিন ক্রুজে অনায়াসে কাটাতে পারেন।
সেজন্য তার প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটানোর সব ব্যবস্থা থাকবে।


তিনি বলেন, এ ধরনের ক্রুজ ইউরোপে রয়েছে,
ভারতেও নেই। আমরা যে তিনটা নিয়ে আসবো তাতে ভারত, শ্রীলংকা, মালদ্বীপ ভ্রমণ
করতে পারবেন নৌ পথে। অসুস্থ হলে হাসপাতালে নিতে হ্যালিপ্যাডের ব্যবস্থাও
থাকবে।


বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন করপোরেশন-
বিআইডব্লিউটিসি'র অধীনে এই তিন ক্রুজের মূল্য প্রায় তিনশো কোটি টাকা।
বিআইডব্লিউটিসি'র জন্য ৩৫ টি বাণিজ্যিক জলযান, ৮ টি সহায়ক জলযান ও ২ টি
নতুন স্লিপওয়ে নির্মাণ (১ম সংশোধিত) শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এই তিন
প্যাসেঞ্জার ক্রুজ ভেসেল সংগ্রহ করা হবে।

0 Share Comment
Deshi Group
15 September 2021, 19:05

নতুন চারটি আইফোনের ঘোষণা দিল অ্যাপল

নতুন চারটি আইফোনের ঘোষণা দিল অ্যাপল
অবশেষে অ্যাপলের পক্ষ থেকে এল আইফোন ১৩ সিরিজের ঘোষণা। তবে এবার প্রায় সবকিছু অনুমিতই ছিল। নকশা কেমন হবে, ক্যামেরায় কী পরিবর্তন আসবে, দাম কত হবে—সবকিছুই। অ্যাপল যে চমকে দিতে পারেনি, তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। তবু নতুন আইফোন বলে কথা।

চারটি মডেলে এল আইফোন ১৩। গতবারের মতোই মডেল চারটি হলো আইফোন ১৩, আইফোন ১৩ মিনি, আইফোন ১৩ প্রো এবং আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স। নাম থেকে এই চার মডেলকে দুই ভাগে ভাগ করা যেতে পারে। ‘প্রো’ মডেল, আর ‘নন-প্রো’ মডেল।

আইফোনে ১২ সিরিজে যেমন নকশায় বড়সড় পরিবর্তন এসেছিল, আইফোন ১৩ সিরিজে তেমন নয়। বলতে গেলে নকশায় চোখে পড়ার মতো কোনো পরিবর্তনই নেই। পর্দার ওপরের দিকে নচ কিছুটা ছোট হয়েছে কেবল।

আইফোন ১৩ ও আইফোন ১৩ মিনির ডিসপ্লের আকার যথাক্রমে ৬ দশমিক ১ এবং ৫ দশমিক ৪ ইঞ্চি। ডিসপ্লেতে আগের মতোই ওলেড প্যানেল থাকলেও উজ্জ্বল বলে ঘোষণায় জানিয়েছে অ্যাপল।

আইফোন ১৩ সিরিজের স্মার্টফোনগুলোর ব্যাটারি উন্নত করা হয়েছে। আইফোন ১২ মিনির চেয়ে আইফোন ১৩ মিনির ব্যাটারি দেড় ঘণ্টা বেশি টিকবে বলে জানিয়েছে অ্যাপল। আর পূর্বসূরির চেয়ে আইফোন ১৩ মডেলে ব্যাটারির আয়ু বেড়েছে আড়াই ঘণ্টা।

বড় পরিবর্তনটা এসেছে ক্যামেরাতেই। গত বছর কেবল আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্সে যে ধরনের ক্যামেরা যোগ করা হয়েছিল, এবার সব কটি মডেলেই তেমন বড় সেন্সরের ক্যামেরা পাবেন গ্রাহক। আইফোন ১৩ ও আইফোন ১৩ মিনির পেছনে থাকছে ১২ মেগাপিক্সেলের দুটি ক্যামেরা।

আইফোন ১৩ ও আইফোন ১৩ মিনির দাম শুরু হয়েছে যথাক্রমে ৮২৯ ও ৭২৯ ডলার থেকে। এই দুটি মডেল পাওয়া যাবে ১২৮ গিগাবাইট, ২৫৬ গিগাবাইট এবং ৫১২ গিগাবাইট স্টোরেজে। নির্দিষ্ট কিছু দেশে ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে প্রি-অর্ডার করা যাবে, আর বাজারে আসবে ২৪ সেপ্টেম্বরে।

আইফোন ১৩ প্রোতে ৬ দশমিক ১ ইঞ্চি এবং আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্সে ৬ দশমিক ৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে থাকছে। ডিসপ্লেগুলো ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ‘প্রো-মোশন’ প্রযুক্তির।

আইফোন ১৩ প্রোর দাম শুরু হয়েছে ৯৯৯ ডলার থেকে। আর আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্সের দাম পড়বে অন্তত ১ হাজার ৯৯ ডলার। শুক্রবার থেকে প্রি–অর্ডার করা যাবে কয়েকটি দেশে। আর বাজারে আসবে ২৪ সেপ্টেম্বরে। অর্থাৎ সব কটি আইফোন একই দিনে বাজারে আসছে।

এবারও প্রো মডেল দুটিতে তিনটি করে ক্যামেরা আছে। ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরায় কম আলোয় ভালো ছবি তোলা যাবে বলে অ্যাপলের দাবি। আর নতুন ম্যাক্রো মোডে ২ সেন্টিমিটার দূরের বস্তুতেও ফোকাস করার সুবিধা মিলবে। টেলিফটো লেন্সে তিন গুণ জুম করার সুবিধা যুক্ত করায় তিনটি ক্যামেরা মিলিয়ে মোট ছয় গুণ অপটিক্যাল জুমের সুবিধা পাবেন ব্যবহারকারীরা। স্মার্টফোন দুটি বাজারে আসবে গ্রাফাইট, সোনালি, রুপালি ও হালকা নীল রঙে।

নতুন আইফোনগুলো চলবে অ্যাপলের তৈরি এ১৫ বায়োনিক প্রসেসরে। প্রতিষ্ঠানটির ভাষায় যা আগের চেয়ে দ্রুতগতির ও বিদ্যুৎসাশ্রয়ী। এর সঙ্গে নতুন দুটি আইপ্যাড মিনি এবং অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৭-এর ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল।
0 Share Comment
Deshi Group
15 September 2021, 18:57

প্রাক্তন স্ত্রীকে স্পার্ম ডোনেট, সন্তানও হল নারীর

প্রাক্তন স্ত্রীকে স্পার্ম ডোনেট, সন্তানও হল নারীর
প্রাক্তন স্ত্রীকে স্পার্ম ডোনেট করলেন এক ব্যক্তি। যিনি আপাতত দ্বিতীয় স্ত্রীর সঙ্গে থাকেন এবং তাদের পাঁচ বছরের একটি মেয়েও আছে। ঘটনাটি আমেরিকার ফ্লোরিডার টেম্পার।

ডেইলি মেলসহ একাধিক সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, জোশ নামে ওই ব্যক্তির দু’বার বিয়ে হয়েছে। প্রথমবার বিয়ের সময় জোশ জানতেন না যে তার স্ত্রী সমলিঙ্গের। বিয়ের পর সেই কথা জানতে পারেন। তার জেরে পাঁচ বছর পরে পারস্পরিক সহমতের ভিত্তিতে বিবাহ-বিচ্ছেদ হয়ে যায় জোশ এবং প্রথম স্ত্রী জেনিফারের। ততদিনের তাঁদের একটিও ছেলে হয়েছে। যে ছেলের বয়স এখন ১১।

রিপোর্ট অনুযায়ী, জেনিফারের সঙ্গে বিবাহ-বিচ্ছেদের পর জোশ বিয়ে করেন ড্যানিয়েল নামের এক নারীকে। তাদের পাঁচ বছরের একটি মেয়েও আছে। অন্যদিকে, নিজের বান্ধবীর সঙ্গে বিবাহ-বন্ধনে আবদ্ধ হন জেনিফার। সন্তানের জন্য জোশের দ্বারস্থ হন তিনি। সেই পরিস্থিতিতে জেনিফারকে স্পার্ম ডোনেট করতে রাজি হয়ে যান জোশ। সেইমতো নির্দিষ্ট সময় স্পার্ম ডোনেট করেন তিনি। ইতিমধ্যে সন্তানও হয়েছে জেনিফারের। আপাতত জোশ, ড্যানিয়েল ও তাঁদের পাঁচ বছরের মেয়ে এবং জেনিফার, তার বান্ধবী ও তাদের সন্তান একসঙ্গেই থাকেন। একইসঙ্গে থাকেন জোশ ও জেনিফারের ১১ বছরের ছেলেও।

সম্প্রতি আমেরিকার একটি টিভি শোয়ে গিয়েছিলন জোশরা। সঙ্গে ছিলেন ড্যানিয়েল ও তার পাঁচ বছরের মেয়ে এবং জেনিফার, তার বান্ধবী ও তাদের সন্তান। সেখানে প্রত্যেকে নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন। তারা জানিয়েছেন, পুরো বিষয়টিতে তারা অত্য়ন্ত খুশি। জোশ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘কারও সঙ্গে বিবাহ-বিচ্ছেদ হলেই তাকে ঘৃণা করতে হবে, এমনটা নয় মোটেও। বিশেষত যখন বাচ্চারাও থাকে।’
0 Share Comment
$
$