অনলাইন শপিং,ফ্রিল্যান্সিং ও অন্যান্য কাজ করার জন্য এই ওয়েবসাইটে একটি একাউন্ট থাকতে হবে। একাউন্ট খোলা মানেই টাকা দিতে হবে এমন না। ফ্রিল্যান্সার অথবা বায়ার, এর যে কোন একটি চয়েজ করে একাউন্ট তৈরি করতে হবে।অথবা শপিং সেকশনের যে কোন প্রোডাক্টের এ্যাড টু কার্ট বাটনে ক্লিক করেও আপনি একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।সাইনআপ করুন এবং কাজ পোষ্ট করুন। ফ্রিল্যান্সারগণ কাজ খুজুন ও বিড করুন।একাউন্ট তৈরি হলে আপনি আপনার দেয়া ইউজার আইডি ও পাসওর্য়াড ব্যবহার করে সাইটে লগইন করতে পারবেন। You must have an account on this website for online shopping, freelancing and other activities. Opening an account does not mean that you have to pay. Freelancer or buyer, you have to create an account by choosing one of them. Or you can create an account by clicking on the add to cart button of any product in the shopping section.Sign up and post work. Freelancers find work and bid. Once the account is created, you can login to the site using your given user ID and password.

We have 82 guests and no members online

All Posts

4786 posts found

National/International News Group
01 November 2021, 13:08

আজ থেকে যেসব ফোনে চলবে না হোয়াটসঅ্যাপ

আজ থেকে যেসব ফোনে চলবে না হোয়াটসঅ্যাপ
মেসেজিং প্ল্যাটফরম হিসাবে বিশ্বব্যাপী ব্যাপকভাবে জনপ্রিয় ফেসবুক মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ। আজ ১ নভেম্বর থেকে প্রায় ৪৩টি মডেলের স্মার্টফোনে বন্ধ হয়ে যাবে এ অ্যাপটির সেবা। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এরই মধ্যে স্মার্টফোনের মডেলগুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে। বলা হয়েছে, প্রাথমিকভাবে অ্যানড্রয়েড ডিভাইসগুলোর ক্ষেত্রে ভার্সন ৪.০.৩ বা তার নিচের মডেলগুলোতে হোয়াটসঅ্যাপ কাজ করবে না। একইসঙ্গে, আইফোনের ক্ষেত্রে আইওএস ৯ বা তার চেয়ে পুরোনো মডেলগুলোতেও হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধ হয়ে যাবে।

যেসব ফোনে চলবে না তার তালিকা-

আইফোন : আইফোন ৪এস এবং এর থেকে পুরোনো ডিভাইসে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করা যাবে না।

স্যামসাং : স্যামসাংয়ের এই ডিভাইসগুলোতে হোয়াটসঅ্যাপ কাজ করবে না- Samsung Galaxy Trend Lite, Galaxy Trend II, Galaxy SII, Galaxy S3 mini, Galaxy Xcover 2, Galaxy Core Ges Galaxy Ace 2.

সনিঃ Sony Xperia Miro, Sony Xperia Neo L Ges Xperia Arc S মডেলের ডিভাইসে ১ নভেম্বর থেকে হোয়াটসঅ্যাপ কাজ করবে না।

জেডটিই : জেডটিই-এর যেসব ডিভাইসে হোয়াটসঅ্যাপ চলবে না সেগুলো হলো-ZTE Grand S Flex, ZTE V956, Grand X Quad V987 Ges Grand Memo.

হুয়াওয়ে : Huawei Ascend G740, Ascend Mate, Ascend D Quad XL, Ascend D1 Quad XL, Ascend P1 S, এবং Ascend D2 এই মডেলের ডিভাইসগুলো ব্যবহার করলে হোয়াটস্অ্যাপ ব্যবহারের জন্য ডিভাইস আপগ্রেড করতে হবে।

এলজি : GL Lucid 2, Optimus F7, Optimus F5, Optimus L3 II Dual, Optimus F5, Optimus L5, Optimus L5 II, Optimus L5 Dual, Optimus L3 II, Optimus L7, Optimus L7 II Dual, Optimus L7 II, Optimus F6, Enact, Optimus L4 II Dual, Optimus F3, Optimus L4 II, Optimus L2 II, Optimus Nitro HD Ges 4X HD, Ges Optimus F3Q -ডিভাইসগুলোতে হোয়াটসঅ্যাপ কাজ করবে না।

অন্যান্য ডিভাইস : অন্যান্য যেসব ডিভাইসে হোয়াটসঅ্যাপ চলবে না তা হলো-TC Desire 500, Alcatel One Touch Evo 7, Archos 53 Platinum, Caterpillar Cat B15, Wiko Cink Five, Wiko Darknight, UMi X2, Faea F1, THL W8 Ges Lenovo A820
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 13:07

চালু হলো ই-নালিশ

চালু হলো ই-নালিশ | ছবি: সংগৃহীত
নানারকম সামাজিক অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যাবে ই নালিশের প্ল্যাটফরমে। সামাজিক সমস্যা থেকে পরিত্রাণ ও সেবা প্রাপ্তির প্রক্রিয়াকে জনবান্ধব করতে ‘সঠিক তথ্যে দ্রুত সেবা’ স্লোগানে ই নালিশ নামে অ্যাপটি ডেভেলপ করেছে নোয়াখালী জেলা প্রশাসন। জানা গেছে, অ্যাপটির মাধ্যমে প্রমাণসহ অভিযোগ করতে পারবেন ভুক্তভোগী। অ্যাপেই প্রমাণস্বরূপ যুক্ত করা যাবে ছবি, ভিডিও, ডকুমেন্টসহ ওয়েব লিংক। ই-নালিশ অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে একজন সচেতন নাগরিক বা ভুক্তভোগী তার অভিযোগটি যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানাতে পারবেন মুহূর্তেই।

২৮ অক্টোবর অ্যাপসটির উদ্বোধন করেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো. কামরুল হাসান। তিনি মনে করেন, ই-নালিশ অ্যাপ্লিকেশন নিশ্চিত করবে সুষ্ঠু জবাবদিহিতা, হ্রাস করবে বিভিন্ন সমাজিক সমস্যা, নিশ্চিত করবে নিরবচ্ছিন্ন সরকারি সেবা যার ফলে অর্জিত হবে জনবান্ধন প্রশাসন।

ই-নালিশ অ্যাপ্লিকেশন গুগোল প্লে স্টোর থেকে যে কেউ ডাউনলোড করে নিজের মোবাইলে ইন্সটল করে জানাতে পারবেন নিজের পাশাপাশি অন্যের পক্ষে অভিযোগ। অভিযোগ দাখিলের ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীরা ঘটনার স্থানসহ, অভিযোগের ধরন নির্বাচন, যেমন- বাল্যবিয়ে, ইভটিজিং, দুর্নীতি বা জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন ইত্যাদিসহ কার বরাবর অভিযোগ দাখিল করতে চান তা নির্বাচন করার মাধ্যমে অতি সহজেই অভিযোগ দাখিল করতে পারবে।
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 13:06

নতুন গ্রহের সন্ধান

নতুন গ্রহের সন্ধান | প্রতীকী ছবি
জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা নক্ষত্রমণ্ডলে নতুন গ্রহের সন্ধান পেয়েছে। হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক এ গ্রহটি খুঁজে পেয়েছেন। মনে করা হচ্ছে, গ্রহের জন্ম ও ক্রমবিবর্তনের ধারাটিকে আরও ভালো করে বুঝতে সাহায্য করবে এ নব্য আবিষ্কৃত গ্রহ। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, বয়সে কার্যত সদ্যোজাত হলেও গ্রহটি বৃহস্পতির চেয়েও ভারী। কয়েক কোটি বছর আগে তার জন্ম। কিন্তু গ্রহ হিসাবে সে অত্যন্তই নবীন। 2M0437b নামের গ্রহটি এতটাই অল্পবয়সি যে সৃষ্টির সময়কার উত্তাপ এখনো রয়েছে তার শরীরে। গবেষক দলের অন্যতম সদস্য এরিক গাইডোস জানিয়েছেন, ‘গ্রহটি থেকে যে আলো প্রতিফলিত হচ্ছে, তা পর্যবেক্ষণ করলে আমরা এটির গঠনগত উপাদান সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারব।’
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 13:04

আরিয়ানের জন্য দেহরক্ষী নিয়োগ দিতে পারেন শাহরুখ

আরিয়ানের জন্য দেহরক্ষী নিয়োগ দিতে পারেন শাহরুখ


ছেলে আরিয়ান খানের জন্য এবার দেহরক্ষী নিয়োগ দিতে যাচ্ছেন শাহরুখ খান। জেল থেকে ২৬ দিন পর বাড়ি ফিরলে এমনি চিন্তাভাবনা করছেন শাহরুখ-গৌরী দম্পতি।

শাহরুখ খানের বাসভবন ‘মান্নতে’ ফেরার পর ছেলেকে নিয়ে অতি সাবধানী শাহরুখ এবং গৌরী খান। আরিয়ান হাজত থেকে ছাড়া পেলেও পুরোপুরি নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না তারা। তাই ছেলের জন্য এবার দেহরক্ষী নিয়োগের প্রয়োজনবোধ করছেন তারা।

শাহরুখ খানের ঘনিষ্ঠমহলের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

শাহরুখের ঘনিষ্ঠ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, "এ ঘটনা শাহরুখকে নাড়িয়ে দিয়েছে। তিনি মনে করছেন, কিছু ঘটলে দেহরক্ষী আরিয়ানকে রক্ষা করতে পারবেন।"

এদিকে আরিয়ানের জন্য মনোবিদ নিয়োগের কথা ভেবেছেন গৌরী। জ্যেষ্ঠ পুত্রকে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরাতে আপ্রাণ চেষ্টা মা-বাবার। জামিন পেলেও আপাতত বাড়িতেই থাকবেন শাহরুখপুত্র। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখিও হবেন না তিনি।

আরিয়ানের ঘনিষ্ঠদেরও আপাতত ‘মান্নত’ এ না আসার অনুরোধ করা হয়েছে। আইনি বন্দিদশা ঘুচলেও আপাতত তাই চার দেওয়ালের ঘেরাটোপেই দিন কাটবে আরিয়ানের।
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 13:01

অবসরের পর বার্সেলোনার দায়িত্ব নিতে চান মেসি

অবসরের পর বার্সেলোনার দায়িত্ব নিতে চান মেসি


লিওনেল মেসি আর বার্সেলোনা নামটি যেন একই সূত্রে গাঁথা। জন্মস্থান আর্জেন্টিনার রোজারিও হলেও, তার বেড়ে উঠা, যশ-খ্যাতি সবই পেয়েছেন এ কাতালান ক্লাবটির হয়ে। তাইতো খেলা থেকে অবসরের পর আবার বার্সায় ফিরতে চান এ জীবন্ত কিংবদন্তি।

গণমাধ্যম, স্পোর্তকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছেন, সবসময়ই বলে আসছি, ‘বার্সেলোনকে সাহায্য করতে যেকোনো উপায়ে আমি স্পেনে ফিরতে রাজি। টেকনিক্যাল সেক্রেটারি হতে পছন্দ করব। তবে তিনি এও বলেছেন, ‘আমি জানি না, বার্সেলোনায় সেটা সম্ভব হবে কিনা।’

এ সময় বার্সেলোনার প্রতি নিজের ভালোবাসার কথা জানাতেও লুকাননি মেসি, ‘যতটুক সম্ভব অবদান রাখতে আমি বার্সায় ফিরতে চাই। কারণ আমি ক্লাবটাকে ভালোবাসি। ক্লাবের উপকারে আসতে পারলে এবং উন্নতিতে অবদান রেখে বিশ্বসেরার কাতারে নিতে পারলে আমার বেশ ভালো লাগবে।’

প্রসঙ্গত, চলতি মৌসুমের শুরুতে লা লিগার বেতন-সংক্রান্ত জটিলতায় মেসিকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় বার্সেলোনা। ছয়বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এই ফুটবলার পরে নাম লেখান পিএসজিতে। আপাতত এ ক্লাব ছাড়ার কোনো ইচ্ছে না থাকলেও, অবসরের পর আবার বার্সায় ফেরার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন মেসি।
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 13:00

দৌলতদিয়ায় পারাপারের অপেক্ষায় ৩ শতাধিক ট্রাক

দৌলতদিয়ায় পারাপারের অপেক্ষায় ৩ শতাধিক ট্রাক
দেশের দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার হিসেবে খ্যাত ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া প্রান্তে ও রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড় থেকে রাজবাড়ীমুখী কল্যাণপুর তিন কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে।

দৌলতদিয়ায় পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে প্রায় তিন শতাধিক ট্রাক।

সরেজমিন সোমবার বেলা ১১টার দিকে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় গিয়ে এই চিত্র দেখা যায়।

বেনাপোল থেকে আসা ভুসিবোঝাই ঢাকামুখী ট্রাকচালক জমির আলী বলেন, রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় গত শনিবার রাতে এসে আটকে আছি। এখন পর্যন্ত ফেরির নাগাল পাইনি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

দৌলতদিয়া-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে চলাচলকারী লোকাল রাজন পরিবহণের বাসের সুপারভাইজার মোখলেসুর রহমান বলেন, এ নৌরুটে ফেরি স্বল্পতা রয়েছে। এর পাশাপাশি গোয়ালন্দ উপজেলা মাঠে স্থাপিত ওয়েটস্কেলের কারণে চলাচলকারী বাসের যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। দ্রুত ঘাটে ফেরি বাড়ানো ও মহাসড়কের ওয়েটস্কেলটি অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়াঘাট শাখার ব্যবস্থাপক মো. শিহাবউদ্দিন বলেন, দৌলতদিয়া প্রান্তের যানবাহনের সঙ্গে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া প্রান্তে ট্রাকও কিছু যানবাহন এ রুট ব্যবহার করে।

এ কারণে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে যাত্রী ট্রাকচালক ও সহকারীদের কিছুটা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বর্তমানে এ নৌরুটে ছোট-বড় ১৯টি ফেরি চলাচল করছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 12:58

চীনে যে পণ্য রপ্তানি করছে আফগানিস্তান

চীনে যে পণ্য রপ্তানি করছে আফগানিস্তান- ছবি: সংগৃহীত
সাবেক সরকারের পতনের পর থেকে এই প্রথমবারের মতো চীনে পণ্য রপ্তানি শুরু করেছে আফগানিস্তান। উড়োজাহাজে করে আফগানিস্তান থেকে চীনে পাঠানো হয়েছে পাইন বাদাম। প্রথম চালানে বাদাম পাঠানো হয়েছে ৪৫ মেট্রিক টন।

আফগানিস্তানের গণমাধ্যম টোলো নিউজ এ তথ্য জানিয়েছে।

১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের পর থেকে দেশটির সঙ্গে বিভিন্ন দেশ স্থলসীমান্ত ও আকাশপথ বন্ধ করে দেয়। এতে আমদানি-রপ্তানি উভয়ক্ষেত্রে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর মধ্যে চীনে পাইন বাদাম রপ্তানি শুরু তালেবান সরকারের জন্য সুখবর বটে।

রোববার কাবুলে ইসলামিক আমিরাতের কর্মকর্তা, চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টের সদস্য এবং ব্যবসায়ীদের উপস্থিতিতে এয়ার করিডোর পুনরায় চালু করা হয়।

চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান ইউনুস মুমান্দ বলেন, আমরা ৪৫ টন পাইন বাদাম রপ্তানি করতে যাচ্ছি। প্রতিদিন এভাবে রপ্তানি করা হবে। এ প্রক্রিয়া চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রি এবং বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের যৌথ কমিশন দেখভাল করবে।

আফগানিস্তানের তথ্য এবং সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেন, চোরাই পথে পাইন বাদাম পাচার রোধে কাজ করবে ইসলামিক আমিরাত।

তিনি বলেন, পাইন বাদাম পাচার রোধ এবং পাকতিয়া ও অন্যান্য প্রদেশে পাইন বাদাম প্রক্রিয়াজাত কারখানাকে সুযোগ-সুবিধা দেওয়া ইসলামিক আমিরাতের দায়িত্ব।

এদিকে উপপ্রধানমন্ত্রী আব্দুস সালাম হানাফি বলেন, আমরা তুর্কমেনিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছি। আমরা টিএপিআই এবং টিএপি প্রজেক্ট নিয়ে একটি সমাধানে পৌঁছেছি।

কর্তৃপক্ষের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, আফগানিস্তান থেকে চীনে পাইন বাদাম রপ্তানি পাঁচ মাসের মতো বন্ধ ছিল। এয়ার করিডোর বন্ধ থাকায় নিজেদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছিলেন ব্যবসায়ীরা।
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 12:52

টিকায় এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার: শিক্ষামন্ত্রী

টিকায় এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার: শিক্ষামন্ত্রী
এসএসসি, এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনার টিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

সোমবার রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের করোনার টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের টিকা দিতে রাজধানীতে আটটি কেন্দ্র করা হয়েছে। মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে আনুষ্ঠানিকভাবে টিকাকেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে প্রতিদিন পাঁচ হাজার শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, শুরুতে আমরা এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেব। পরীক্ষা শুরুর আগে তাদের টিকা দেওয়ার চেষ্টা করা হবে। তার সঙ্গে অন্যান্য শ্রেণীর শিক্ষার্থীদেরও টিকা দেওয়া হবে।

আগামী ১৪ নভেম্বর পদার্থ বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) বিষয়ের পরীক্ষা দিয়ে ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে। আর এইচএসসি পরীক্ষায় তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা ২ ডিসেম্বর শুরু হয়ে শেষ হবে ৩০ ডিসেম্বর।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. লোকমান হোসেন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মাহবুব হোসেন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. খুরশীদ আলম প্রমুখ।

প্রসঙ্গত শিশুদের টিকা দেওয়ার জন্য প্রথমে ১২টি কেন্দ্র নির্ধারণ করা হয়েছিল। তবে পর্যাপ্ত সুবিধা না থাকায় চারটি বাতিল করা হয়েছে। ফলে আজ থেকে ৮টি কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা দেওয়া হচ্ছে।

কেন্দ্রগুলো হলো— হার্ডকো ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, সাউথপয়েন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজ, চিটাগং গ্রামার স্কুল, মতিঝিলের আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মিরপুর কমার্স স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কাকলী হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সাউথ ব্রিজ স্কুল এবং মিরপুরের স্কলাস্টিকা স্কুল।

১২ থেকে ১৭ বছর বয়সি শিক্ষার্থীদের যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া হচ্ছে।
0 Share Comment
National/International News Group
01 November 2021, 12:49

যে ৫ কারণে কিউইদের বিপক্ষে হারল ভারত

যে ৫ কারণে কিউইদের বিপক্ষে হারল ভারত
সুপার টুয়েলভে বিশাল ব্যবধানে টানা দুটি ম্যাচ হারল ভারত। এ দুই পরাজয়ে ‘গ্রুপ১’ - এর পয়েন্ট টেবিলে নামিবিয়ার নিচেও অবস্থান করছেন কোহলিরা।

বিশ্লেষকদের মতে, বিশ্বকাপ থেকে কার্যত ছুটি হয়ে গেল ভারতের।

নিউজিল্যান্ডের কাছে পাত্তাই পেল না ভারত। ৩৩ বল বাকি থাকতে ৮ উইকেটে হেরে গেছেন তারা।

কী কারণে দ্বিতীয় ম্যাচেও বিরাট কোহলিদের এমন অসহায় আত্মসমর্পণ ম্যাচের পরই তার বিশ্লেষণ করেছে ভারতের সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ।

ভারতের এই পরাজয়ে ৫ কারণ খুঁজে পেয়েছে তারা।

১. নিউজিল্যান্ড ম্যাচেও টসে হারলেন বিরাট কোহলি। এই টস হারাকেই বড় ফ্যাক্টর হিসেবে ধরা হচ্ছে। এবারের বিশ্বকাপে টস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে যাচ্ছে। টসে হারা দল জয়ের মুখ দেখছে না।

২. টস হারাকে অজুহাত হিসেবে নিলেও নিউজিল্যান্ডের কাছে ভারতের হারের আসল কারণ জঘন্য ব্যাটিং। ভারতের সব ব্যাটসম্যানই অত্যন্ত খারাপ শট নির্বাচন করে আউট হয়েছেন। বিশের ঘর পার করতে পেরেছেন মাত্র দুজন।

৩. ভারতের গোটা ইনিংসে মাত্র দুটি ছক্কা আর আটটি বাউন্ডারি এসেছে। কোহলি, ঋষভ, হার্দিক মিলে মোট ৬০টি বল খেলেছেন। এই ৬০ বলে চার হয়েছে মাত্র একটি। হার্দিক সেই বাউন্ডারি হাঁকান। কোহলি, রোহিতের ব্যাট থেকে কোনো বাউন্ডারি আসেনি।

৪. ভারতীয় দলের ব্যাটিং অর্ডার বদলে দেওয়া হয়। আগের ম্যাচে ভারতীয়দের মধ্যে সব থেকে বেশি রান করা কোহলি এক ধাপ পিছিয়ে চার নম্বরে নামেন। রোহিতকে ওপেনিংয়ের জায়গা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। এটিকে ম্যাচ হারার একটি কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে।

৫. বল হাতে ভারতীয় বোলাররা ছিলেন চরম ব্যর্থ। রবিন্দ্র জাদেজা, মোহাম্মদ শামি, শার্দুল ঠাকুর একটিও উইকেট পাননি। কেবল জাসপ্রিত বুমরা ছিলেন সমহিমায়। ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে ২ উইকেট শিকার করেন তিনি। জয়ের জন্য বুমরার একার পারফরম্যান্স যথেষ্ট ছিল না।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:42

এমিরেটস ‘মাইল’ দিয়ে কেনা যাবে খেলার টিকিট

এমিরেটস ‘মাইল’ দিয়ে কেনা যাবে খেলার টিকিট
সারা বিশ্বে খেলাধুলার স্পন্সর হিসেবে এমিরেটসের খ্যতি রয়েছে। এয়ারলাইনটির স্পন্সরশীপে অন্তর্ভূক্ত রয়েছে বিভিন্ন ক্লাব, ক্রীড়া ইভেন্ট এবং আন্তর্জাতিক ক্রীড়া সংস্থা।

এমিরেটস ও ফ্লাই দুবাইয়ের লয়্যালটি প্রোগ্রাম- এমিরেটস স্কাইওয়ার্ডসের সদস্যদের জন্য স্পন্সরকৃত বিভিন্ন নামীদামী ক্রীড়া ইভেন্ট মাঠে বসে দেখার সুযোগ করে দিচ্ছে এমিরেটস। সদস্যরা তাদের অর্জিত মাইল (পয়েন্ট) ব্যবহার করে এই টিকিট কিনতে পারবেন।

বর্তমানে ইউএইতে অনুষ্ঠানরত আইসিসি টি-টুয়েন্টি ওয়ার্ল্ডকাপও এর মধ্যে অন্তর্ভূক্ত। উল্লেখ্য, এমিরেটস টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট ওয়ার্ল্ডকাপের এয়ারলাইন স্পন্সর এবং আইসিসির বৈশ্বিক পার্টনার।

এছাড়া ফমূলা- ১ এর মূল রেসগুলো (মেক্সিকো, ব্রাজিল সৌদি আরব), এমিরেটস স্টেডিয়ামে আর্সেনালের হোম ম্যাচগুলো, মিলানের স্যান সিরো স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠানরত এসি মিলানের হোম ম্যাচগুলো, রিয়েল মাদ্রিদের ম্যাচগুলোর হসপিটালিটি টিকিট ইত্যাদি।

স্কাইওয়ার্ডস সদস্যরা ‘মাইল’ ব্যবহার করে বিশেষ ক্রীড়া পন্যও কেনার সুযোগ পাবেন, যার মধ্যে রয়েছে এসি মিলান, বেনফিফা, এবং চেলসিয়র ফুটবল ক্লাবের স্কাক্ষরকৃত জার্সি।

বর্তমানে বিশ্বব্যাপী এমিরেটস স্কাইওয়ার্ডেস সদস্য সংখ্যা ২ কোটি ৭০ লক্ষ, যার মধ্যে বাংলাদেশে প্রায় ৯০,০০০।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:38

গ্লাসগোর দিকে তাকিয়ে বিশ্ব

গ্লাসগোর দিকে তাকিয়ে বিশ্ব


স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে রোববার (৩১ অক্টোবর) থেকে শুরু হচ্ছে জলবায়ু সম্মেলন। জাতিসংঘের কনফারেন্স অব দ্য পার্টিজের (কপ)-২৬তম এই আয়োজনে বিশ্বের ১২০টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান বা তাদের প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন। সম্মেলন শেষ হবে ১২ নভেম্বর।

বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি সীমিত রাখা, জলবায়ু তহবিলের কার্যকর বাস্তবায়নসহ ৩টি প্রস্তাব নিয়ে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্মেলনে যোগ দিতে ঢাকা ছেড়েছেন সরকার প্রধান। ১৩ দিনের এই সফরে লন্ডন ও প্যারিসেও যাবেন তিনি।

লন্ডন সফরের আগেই গ্লাসগোতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে তার দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিবছর একবার এই সম্মেলন হলেও ২০১৫ সালের প্যারিস চুক্তির পর এবারই তা বড় আকারে হচ্ছে। করোনার কারণে গত বছর ভার্চুয়ালি এ সম্মেলন হয়।
nagad

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি গ্রিনহাউজ গ্যাস নির্গমনকারী দেশ চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে আছেন বিশ্ব নেতারা। জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় কার্বন গ্যাস নির্গমন কমানোর কোনো উদ্যোগই সফল হবে না, যদি এই দুটো দেশকে কার্যকরভাবে সম্পৃক্ত করা না যায়। তাই এবারের বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে সর্বোচ্চ কার্বন নির্গমনকারী এই দুটি দেশকে গ্যাস নির্গমন কমানো এবং ক্ষতির আনুপাতিক হারে ক্ষতিপূরণ দেয়ার বিষয়ে চাপ দেয়া হতে পারে।

একই সঙ্গে জি৭ সম্মেলনের ঘোষণা অনুযায়ী ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণ ‘নিট জিরো’-তে নামিয়ে আনার বিষয়টিও গুরুত্ব পাবে এবারের সম্মেলনে।

সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় অভিযোজন ও প্রশমনে সমান অর্থ বরাদ্দ চাইবে বাংলাদেশ। এ ছাড়া বিশ্বের তাপমাত্রা বৃদ্ধি ১ দশমিক ৫ ডিগ্রিতে সীমাবদ্ধ রাখা, অভিযোজন কার্যক্রম বৃদ্ধি, লোকসান ও ক্ষতির জন্য একটি সেক্রেটারিয়েট স্থাপনসহ আরো কিছু দাবি তুলে ধরা হবে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে।

তথ্যমতে, শক্তি তৈরির জন্য যখন জীবাশ্ম জ্বালানি পোড়ানো হয়, সেখান থেকে বাতাসে মেশে বিভিন্ন কার্বন গ্যাস, এর বেশিরভাগই কার্ব-ডাইঅক্সাইড। এসব গ্যাস সূর্যের আলো থেকে তাপ ধরে রাখে। ফলে বাড়তে থাকে পৃথিবীর তাপমাত্রা। এই বাড়তি তাপমাত্রাই বদলে দিচ্ছে জলবায়ু, একদিকে বরফ গলে যাচ্ছে, আরেক দিকে বাড়ছে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা। চরম আবহাওয়া ডেকে আনছে মৃত্যু আর ধ্বংস।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, বিপর্যয় এড়াতে হলে বিশ্বের তাপমাত্রা বৃদ্ধির গতি কমিয়ে আনতে হবে। সে জন্য কমাতে হবে কার্বন গ্যাস নির্গমন। ২০১৫ সালে প্যারিস চুক্তিতে বিশ্ব নেতারাও একমত হয়েছিলেন। এবারের সম্মেলনে ২০৩০ সালের মধ্যে কোন দেশ কার্বন নির্গমন কতটা কমাবে, সেই পরিকল্পনা তুলে ধরার কথা। আর যুক্তরাষ্ট্র ও চীন কী পরিকল্পনা দেয়, সেটা থাকবে সবার মনোযোগের কেন্দ্রে।

প্রথম দিনে বক্তব্য দেবেন শেখ হাসিনা: গ্লাসগোয় ১ ও ২ নভেম্বর সম্মেলনের শীর্ষ বৈঠকসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে যোগ দেবেন শেখ হাসিনা। বক্তব্য দেবেন প্রথম দিনে। ১ নভেম্বর সিভিএফ ও কমনওয়েলথের একটি যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে, যেখানে প্রধান অতিথি থাকবেন শেখ হাসিনা। একই দিন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের আমন্ত্রণে ‘অ্যাকশন অ্যান্ড সলিডারিটিÑ দ্য ক্রিটিক্যাল ডিকেইড’ শীর্ষক সভায় তিনি অংশ নেবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২ নভেম্বর জলবায়ু সম্মেলনে ‘উইমেন অ্যান্ড ক্লাইমেট’ শীর্ষক সভায় যোগ দেবেন। সফরে স্কটিশ পার্লামেন্টে স্কটিশ সংসদ সদস্যদের উদ্দেশে ‘এ কল ফর ক্লাইমেট প্রসপারিটি’ শীর্ষক বক্তব্য দেবেন শেখ হাসিনা।

গ্লাসগোতে ব্যস্ততম দু’দিন পার করে ৩ নভেম্বর ৬ দিনের লন্ডন সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরকালে ওয়েস্টমিনস্টারে যুক্তরাজ্য পার্লামেন্টের সদস্যদের উদ্দেশে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভাষণ দেবেন তিনি। লন্ডনে বাংলাদেশ সিকিউরিটিস অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন ও বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ আয়োজিত বিনিয়োগ সম্মেলনে তিনি ভার্চুয়ালি অংশ নেবেন। লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনের আয়োজনে বঙ্গবন্ধু বিষয়ে গোপন দলিলপত্রের নতুন প্রকাশিত খণ্ডসমূহের মোড়ক উšে§াচন করবেন তিনি।

লন্ডন থেকে ফ্রান্স সরকারের আমন্ত্রণে এবং ইউনেস্কোর আয়োজনে যোগ দিতে ৯ নভেম্বর প্যারিস সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

৩ প্রস্তাব নিয়ে জলবায়ু সম্মেলনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী: বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি সীমিত রাখা, জলবায়ু তহবিলের কার্যকর বাস্তবায়নসহ ৩টি প্রস্তাব নিয়ে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্মেলনে যোগ দিতে আজ ঢাকা ছাড়ছেন সরকারপ্রধান। ১৩ দিনের এই সফরে লন্ডন ও প্যারিসেও যাবেন তিনি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে ইউরোপের তিন দেশে প্রধানমন্ত্রীর সফরের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি জানান, তাপমাত্রা বৃদ্ধির মাত্রা ১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নামিয়ে আনতে ‘ন্যাশনালি ডিটারমিন্ড কনট্রিবিউশনস (এনডিসি)’ ঠিক করা, ১০০ বিলিয়ন ডলারের জলবায়ু তহবিলের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানি বাড়াতে সহযোগিতা বাড়ানোর বিষয় তুলে ধরবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করার পাশাপাশি তিনি এবারের জলবায়ু সম্মেলনে ঝুঁকির মুখে থাকা ৪৮ দেশের জোট ‘ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের (সিভিএফ)’ চেয়ারপার্সন হিসাবে যাচ্ছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বলেছি, প্রত্যেক দেশ তাদের এনডিসি এমন জোরালোভাবে তৈরি করবে, যাতে পর্যায়ক্রমে আমাদের তাপমাত্রা বৃদ্ধি ১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের মধ্যে থাকে। এখন দুই ডিগ্রির মতো হয়ে যাচ্ছে, এটা কমাতে হবে। বিশেষ করে শিল্পোন্নত দেশকে এক্ষেত্রে ভূমিকা নিতে হবে। কারণ ৮০ ভাগ কার্বন নিঃসরণ করে জি২০ দেশ। তারা যাতে জোরালোভাবে কাজ করে, এমিশনটা কমে।’

জলবায়ু তহবিলের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘২০১৫ সালে প্যারিস সম্মেলনে উন্নত দেশগুলো অঙ্গীকার করেছিল, জলবায়ু তহবিলে ২০২০ থেকে প্রতিবছর ১০০ বিলিয়ন ডলার অনুদান দেবে। আমরা চাই, এবার সেটির বাস্তবায়ন হবে, তোমরা শুধু মুখে মুখে বলো, এবার তোমাদের অবশ্যই দিতে হবে।’

অভিযোজন ও প্রশমন দুই খাতে ৫০ শতাংশ করে এই তহবিলের অর্থ খরচের দাবি আগে থেকে জানিয়ে আসছে বাংলাদেশ। নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে সহযোগিতা বাড়ানোর বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘গ্রিনহাউজ গ্যাস নিঃসরণে বাংলাদেশের অবদান শূন্য দশমিক ৪৭ শতাংশ। একেবারে নিতান্ত কম। আমরা চাই যে, আমরা আরও কমাব। কমাতে গেলে, আমরা নবায়নযোগ্য জ্বালানি অধিক পরিমাণে চাই। আমরা মুজিব প্রসপ্যারিটি প্ল্যান নিয়েছি এবং এটা খুব এগ্রেসিভ প্ল্যান।’

সিভিএফ সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশ কপ-২৬ সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর অধিকার আদায়ে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখছে বলে দাবি করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, এবারের সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ‘সিভিএফ-কপ২৬ লিডার্স ডায়ালগ’ অনুষ্ঠিত হবে।

শীর্ষ বৈঠকে সিভিএফের সদস্য ও পর্যবেক্ষক দেশের রাষ্ট্র বা সরকারপ্রধানরা, কপ-২৬ আয়োজনকারী দেশ যুক্তরাজ্যের শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ অন্যান্য অতিথিরা যোগ দেবেন। এই সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তন রোধ, জলবায়ু অভিযোজন ও অর্থায়নের লক্ষ্যে আহ্বান জানিয়ে ‘ঢাকা-গ্লাসগো ঘোষণা’ গৃহীত হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

জনসন-হাসিনা বৈঠক গ্লাসগোতে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লন্ডন সফরের আগেই গ্লাসগোতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ এই বৈঠক লন্ডনে করার প্রস্তাব দিলেও কপ২৬-এ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর ব্যস্ততার কারণে তা শেষ পর্যন্ত গ্লাসগোতেই নির্ধারিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, গ্লাসগোতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি প্রিন্স চার্লস ও শ্রীলঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোটাবে রাজাপাকসের সঙ্গেও দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী। বরিস জনসনের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে এক প্রশ্নে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ব্রিটিশ সরকারের সঙ্গে আমাদের সব সময় আলোচনা চলে। অনেক দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক আলোচনা চলমান। সম্প্রতি আমরা তাদের সঙ্গে বিশেষভাবে আলোচনা করেছি।’

তিনি বলেন, আমরা স্বল্পআয়ের দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের দিকে যাত্রা শুরু করছি। এর ফলে আমরা বিভিন্ন ধরনের সুবিধা যেটা পাই, ফান্ডসহ অন্যান্য কিছু, এই সুবিধা আমরা ধরে রাখতে চাই। আমরা এরই মধ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে আলাপ করে ২০২৯ সাল পর্যন্ত মোটামুটিভাবে নির্ধারণ করেছি। আমরা আরো চাই। একাধিক ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে।

তিনি বলেন, ব্রিটেনের সঙ্গে তো আমাদের বহু দিকের সম্পর্ক। এমনকী আমরা প্রতিরক্ষা নিয়েও আলাপ করছি সাম্প্রতিককালে। আমরা যেগুলো আগে করেছিলাম, সেগুলো আরো ধারালো করা হবে।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:35

ফাইভজির জন্য ১০০০ জিবিপিএসের নেটওয়ার্ক হচ্ছে

ফাইভজির জন্য ১০০০ জিবিপিএসের নেটওয়ার্ক হচ্ছে
বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. রফিকুল মতিন বলেছেন, চলতি বছরের মধ্যে দেশে ফাইভজি চালুর সরকারি পরিকল্পনা সামনে রেখে সারাদেশে গড়ে উঠছে এক হাজার জিবিপিএস সক্ষমতার উচ্চগতির অপটিক্যাল ফাইবার ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক। এ লক্ষ্যে উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিযোগাযোগ কোম্পানি বিটিসিএল। একই সঙ্গে প্রত্যেক জেলা ৩০০ জিবিপিএস এবং উপজেলা ১০০ জিবিপিএস সক্ষমতার অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্কে সংযুক্ত হবে। এ ছাড়া সারাদেশে সুষ্ঠুভাবে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ বিতরণে ১২টি ইন্টারনেট এক্সচেঞ্জ স্থাপন করা হবে। বৃহস্পতিবার টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সাংবাদিকদের সংগঠন 'টিআরএনবি'র সদস্যদের সঙ্গে একটি যৌথ কর্মশালায় তিনি এসব তথ্য জানান।

কর্মশালায় আরও বক্তব্য দেন বিটিসিএলের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) একেএম হাবিবুর রহমান, এমওটিএন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আসাদুজ্জামান চৌধুরী, টিআরএনবির সভাপতি রাশেদ মেহেদী এবং সাধারণ সম্পাদক সমীর কুমার দে। কর্মশালা সঞ্চালনা করেন বিটিসিএলের মহাব্যবস্থাপক(জনসংযোগ) মীর মোহাম্মদ মোরশেদ।

বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, ফাইভজি প্রযুক্তির সত্যিকারের সেবা নির্ভর করবে অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্কের সক্ষমতার ওপর। বিশ্বব্যাপী বলা হচ্ছে, 'নো ফাইবার, নো ফাইভজি'। এ কারণে দেশের টেলিযোগাযোগ খাতের সবচেয়ে বড় ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক সেবাদাতা কোম্পানি হিসেবে বিটিসিএল এমন একটি শক্তিশালী অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে যাচ্ছে, যা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের কাতারে রাখতে সক্ষম হবে।

তিনি আরও বলেন, বিটিসিএল গ্রাহক সেবা ব্যবস্থাপনা পুরোপুরি ডিজিটাল করেছে। এর ফলে গ্রাহকরা এখন টেলিসেবা অ্যাপ মোবাইল ফোনে ডাউনলোড করে যে কোনো ধরনের সংযোগ নিতে আবেদন করতে পারেন, যে কোনো অভিযোগ জানাতে পারেন। অভিযোগ পাওয়ার পর সর্বোচ্চ তিন দিনের মধ্যে গ্রাহকের সমস্যার সমাধান করা হয়।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:28

মাম্পস Disease

0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:23

কচুর লতি

0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:16

অ্যাটকোর নতুন সভাপতি মাছরাঙার অঞ্জন চৌধুরী

অ্যাটকোর নতুন সভাপতি মাছরাঙার অঞ্জন চৌধুরী
বেসরকারি টেলিভিশন মালিকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স- অ্যাটকোর কার্যনির্বাহী কমিটির বার্ষিক সাধারণ সভা ও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে সংগঠনের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। অঞ্জন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অন্য সদস্যরা অংশ নেন। পরে সংগঠনের তিন বছর মেয়াদি কমিটির জন্য ১৫টি পরিচালক পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ১৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে ২৩ ভোটারের মধ্যে ২০ জন ভোট দেন।

অ্যাটকোর নতুন সভাপতি হয়েছেন মাছরাঙার অঞ্জন চৌধুরী। সিনিয়র সহসভাপতি পদে ডিবিসির ইকবাল সোবহান চৌধুরী এবং সহসভাপতি দেশ টিভির আরিফ হাসান বিজয়ী হয়েছেন।

নির্বাচিত অন্য পরিচালকরা হলেন- টিপু আলম মিলন (বৈশাখী), মাহফুজুর রহমান (এটিএন বাংলা), আব্দুল হক (বাংলাভিশন), মো. জশিম উদ্দিন (আরটিভি), লিয়াকত আলী খান মুকুল (এশিয়ান), কাজী জাহিদুল হাসান (দীপ্ত), আশফাক উদ্দিন আহমেদ (এনটিভি), আহমেদ জোবায়ের (সময় টিভি), রুবানা হক (নাগরিক), সায়েম সোবহান (নিউজ ২৪), আব্দুস সামাদ (ইটিভি) ও জহির উদ্দিন মাহমুদ (চ্যানেল আই)।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:15

ক্যালিফোর্নিয়ার হাইওয়েতে টয়লেট টিস্যু, গাড়ি চলাচল বিঘ্ন

ক্যালিফোর্নিয়ার হাইওয়েতে টয়লেট টিস্যু, গাড়ি চলাচল বিঘ্ন
যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার হাইওয়েতে এক অস্বাভাবিক কারণে গাড়ি চলাচল বিঘ্ন হয়েছে। হাইওয়েতে শত শত রিল টয়লেট টিস্যুর কারণে এই বিঘ্নের ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থলের অ্যারিয়াল ভিডিওতে দেখা যায়, ক্যালিফোর্নিয়ার দক্ষিণ ম্যারিনা বৌলেভার্ডের স্যান লিয়ান্দ্রোর ৮৮০ আন্তঃরাজ্য হাইওয়ের ১০০ গজজুড়ে শত শত রিল টয়লেট টিস্যু ছড়িয়ে রয়েছে। খবর ইউপিআইয়ের।
ক্যালিফোর্নিয়ার যোগাযোগ কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি এই অপ্রত্যাশিত কারণে যান চলাচল কিছুটা বিঘ্ন হয়েছে বলে স্বীকার করেছে। তবে এতে বড় কোনো সমস্যা হয়নি বলে জানানো হয়। তবে এই টয়লেট টিস্যু কোথায় থেকে এবং কীভাবে হাইওয়েতে এসেছে তা পরিষ্কার করে বলতে পারেনি তারা। প্রত্যক্ষদর্শীরা বিষয়টিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট দিয়ে জানতে চেয়েছেন টিস্যুগুলো কোথায় থেকে এসেছে।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:12

ইলিশ আহরণে নানা বিধিনিষেধ শুরু আজ

ইলিশ আহরণে নানা বিধিনিষেধ শুরু আজ
ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধি করতে শুরু হচ্ছে নানা ধরনের নিষেধাজ্ঞা। আজ রোববার মধ্যরাত থেকে আগামী বছরের ২৩ জুলাই পর্যন্ত আট মাস ২৩ দিন এসব বিধিনিষেধ পালিত হবে। অবশ্য প্রতি বছরই এসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়। এ পদক্ষেপের প্রথম ধাপে জাটকা নিধনে নিষেধাজ্ঞা আজ থেকে কার্যকর হবে।

মৎস্য অধিদপ্তরের বরিশাল দপ্তরের মৎস্য সম্প্রসারণ কর্মকর্তা (ইলিশ) ড. বিমল চন্দ্র দাস বলেন, ২৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত আকারের (প্রায় ১০ ইঞ্চি) ইলিশকে জাটকা হিসেবে গণ্য করা হয়। নদনদীতে গত তিন-চার মাসের মধ্যে যেসব মা ইলিশ ডিম ছেড়েছে, তাতে জন্ম নেওয়া ইলিশের আকৃতি এখন ২৫ সেন্টিমিটারের মধ্যেই আছে। জন্মের পর থেকে এক বছর বেঁচে থাকতে পারলে সেটি কমপক্ষে ১২ ইঞ্চি বা এক ফুট আকৃতির বড় ইলিশে পরিণত হবে। এ জন্য প্রতিবছর ১ নভেম্বর থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত জাটকা নিধনে আট মাসের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। এ সময় জেলেরা ৫ দশমিক ৬ সেন্টিমিটার কম ফাঁসের জাল ব্যবহার করলে জেল-জরিমানা করা হবে।

চাঁদপুর ইলিশ গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আনিছুর রহমান বলেন, মা ইলিশ সারা বছরই ডিম দেয়। তবে ৮০ শতাংশ ইলিশ ডিম ছাড়ে আশ্বিনের পূর্ণিমায়। এ জন্য প্রতি বছর আশ্বিনের পূর্ণিমা ও অমাবস্যার মাঝের ২২ দিন ইলিশ নিধন বন্ধ রাখা হয়। এ বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে ২৫ অক্টোবর।

এদিকে অভ্যন্তরীণ নদনদীতে শুধু জাটকা নিধন নিষিদ্ধ হলেও পটুয়াখালীর আন্ধারমানিক নদীর ৪০ কিলোমিটারের অভয়াশ্রমে আজ রোববার মধ্যরাত থেকে আগামী ৩১ জানুয়ারি টানা তিন মাস ইলিশ নিধন পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অন্য মাছ ধরার অজুহাতে ইলিশ নিধন বন্ধ করতে অভয়াশ্রমভুক্ত নদীতে নামতে পারবেন না জেলেরা। আগামী মার্চ ও এপ্রিলজুড়ে একই ধরনের নিষেধাজ্ঞা অপর পাঁচটি অভয়াশ্রমে পালিত হবে। এ ছাড়া অন্যান্য মৎস্য সম্পদের উৎপাদন বৃদ্ধিতে গভীর সাগরে ইলিশসহ সব ধরনের মাছ ধরা বন্ধ থাকবে আগামী বছরের ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত।

মৎস্য অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় দপ্তরের সহকারী পরিচালক নাজমুস সালেহীন বলেন, আট মাসের নিষেধাজ্ঞা পালনের জন্য জেলেদের প্রণোদনা হিসাবে প্রতি মাসে ৪০ কেজি করে চার মাসে ১৬০ কেজি চাল সহায়তা দেওয়া হয়। বরিশাল বিভাগে তালিকাভুক্ত জেলে রয়েছেন তিন লাখ ৯৩ হাজার ১৯১ জন। গত বছর চাল সহায়তা পেয়েছিলেন দুই লাখ ৩২ হাজার ৭১ জন জেলে। এবারও তারা এ সহায়তা পাবেন।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:10

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: সবকটি পণ্যবাহী যান উদ্ধার

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: সবকটি পণ্যবাহী যান উদ্ধার
মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাটে নোঙর করার পর হেলে পড়ে রো রো ফেরি শাহ আমানত থেকে ভেসে ও ডুবে যাওয়া সবকটি পণ্যবাহী যান (ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান) উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে সর্বশেষ কাভার্ডভ্যানটি উদ্ধার করা হয়। তবে এখনও একটি মোটরসাইকেল নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। অন্যদিকে ডুবে যাওয়া ফেরি উদ্ধারে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাতে পারেনি বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)।

শনিবার সকাল থেকে চতুর্থ দিনের মতো ডুবে যাওয়া যান উদ্ধারে কাজ শুরু করে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) উদ্ধারকারী জাহাজ ‘হামজা’ ও ‘রস্তম’। এ দিন সকাল থেকে রাত পযর্ন্ত তিনটি মোটরসাইকেল এবং দুটি কাভার্ডভ্যান উদ্ধার করতে সক্ষম হন। এ নিয়ে চারদিনের অভিযানে মোট ১৪টি পণ্যবাহী যান (ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান) এবং ৫টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার কার্যক্রমের সমন্বয়ক বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক মো. ফজলুর রহমান জাগো নিউজকে জানান, সন্ধ্যায় উদ্ধারকাজে নিয়োজিত সব বাহিনীর সমন্বয়ে দুর্ঘটনাস্থলে চিরুনি অভিযান চালানো হয়। আর কোনো যানবাহন শনাক্ত করা যায়নি। তবে রাতে এক পুলিশ কনস্টেবল দাবি করেছেন তার একটি মোটরসাইকেল পাওয়া যাচ্ছে না। সেই মোটরসাইকেলটি উদ্ধারে রোববার সকালে ফের অভিযান শুরু হবে। সেটি উদ্ধার করা গেলেই যানবাহন উদ্ধার কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে সমাপ্ত ঘোষণা করা হবে।

তিনি আরও বলেন, উদ্ধারকারী জাহাজ ‘হামজা’ ও ‘রস্তম’ যে সক্ষমতা তাতে ডুবে যাওয়া ফেরিটি উদ্ধার করা সম্ভব নয়। এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিসি তাদের করণীয় ঠিক করবেন।

বিআইডব্লিউটিসির আরিচা অঞ্চলের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মো. জিল্লুর রহমান জানান, আমানত শাহ ফেরিটি উদ্ধারে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ঊর্ধ্বতন সবাই আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবেন।

অন্যদিকে শনিবার দুপুরে পাটুরিয়া ঘাটে ফেরির সঙ্গে ডুবে যাওয়া যানবাহনের চালক ও মালিকরা সরকারের কাছে ক্ষতিপূরণের দাবিতে ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

এর আগে বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকালে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাটে নোঙর করার পর হেলে পড়ে রো রো ফেরি শাহ আমানত। এ সময় দু-তিনটি গাড়ি নামতে পারলেও বাকিগুলো পানিতে পড়ে যায়। দুর্ঘটনার পর পরই ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ট ও নৌবাহিনীর ডুবুরি দল উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে। প্রথম তিনদিন যানবাহন উদ্ধারে কাজ করে উদ্ধারকারী জাহাজ ‘হামজা’। চতুর্থদিন যোগ দেয় ‘রস্তম’। এঘটনায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় ও স্থানীয় প্রশাসন আলাদা দু’টি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 12:08

২০২২ সালে বাফুফের উন্নয়ন বাজেট ৪২ কোটি টাকা

২০২২ সালে বাফুফের উন্নয়ন বাজেট ৪২ কোটি টাকা
ফিফা, এএফসি এবং বিভিন্ন খাত থেকে আগামী বছর বাফুফের বার্ষিক আয় হতে পারে ২৪ কোটি টাকার মতো। অথচ বাফুফে আগামী অর্থ বছরের বাজেটে রেখেছে ৪১ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। গতকাল শনিবার রাজধানীর সোনরাগাঁও হোটেলে বার্ষিক সাধারণ সভায় বাফুফের এই ঘাটতি বাজেট অনুমোদিত হয়েছে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে (বাফুফে) চতুর্থবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন কাজী সালাউদ্দিন। তার অধীনে নির্বাহী কমিটির এক বছর পূর্ণ হয়েছে। এবার বার্ষিক সাধারণ সভা করে নিজেদের আয়-ব্যয়ের হিসাবও জানিয়ে দিয়েছে সালাউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন পরিষদ।

একই সঙ্গে জানানো হয়েছে নতুন বছরের আয়-ব্যয়ের হিসাবও। রাজধানীর একটি হোটেলে হওয়া সাধারণ সভায় সারাদেশ থেকে কাউন্সিলররা এসে যোগ দিয়েছিলেন। সেখানে গত বছরের আয় দেখানো হয়েছে ১৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকা। ব্যয় ছিল ২৩ কোটি ২২ লাখ। ঘাটতি ৮ লাখ। এছাড়া ২০২২ সালের সম্ভাব্য আয়-ব্যয়ের হিসাবও দেওয়া হয়েছে। নতুন বছরে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪১ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। যদিও আয় ২৪ কোটি টাকার মতো। ১৭ কোটি টাকার ঘাটতি রয়েছে এখানেও। বার্ষিক সভা শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে বাফুফের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন বলেছেন, ‘শেষ এক বছরের কর্মকা- উপস্থাপনা করেছি। ভবিষ্যতের বাজেট দিয়েছি। সবাই অনুমোদন দিয়েছে। কার কী সমস্যা আছে, এটা নিয়েও আলোচনা করেছি। শান্তিপূর্ণভাবে কংগ্রেস হয়েছে। আমরা খুশি সবাই।’ বার্ষিক সাধারণ সভার দিনে জাতীয় দলের কর্মকা- নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়েছে সালাউদ্দিনকে। বিশেষ করে স্থায়ী কোচ নিয়োগ প্রসঙ্গে। জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে অন্তর্র্বর্তীকালীন কোচ দিয়ে কাজ চলছে, তবে ভবিষ্যতে স্থায়ী কোচ নিয়োগের ইঙ্গিত দিয়েছেন সাবেক তারকা এই স্ট্রাইকার। বাজেট বড়। আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি। মূলত বাজেটের বড় সংস্থান হয়ে থাকে ফিফা-এএফসির থেকে প্রাপ্ত অনুদান প্রাপ্তিতে। এছাড়া পৃষ্ঠপোষকদের কাছ থেকেও ভালো সাড়া পেয়ে থাকে বাফুফে। বাজেটে ঘাটতি নিয়ে সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী বলেছেন, ‘কোভিডের কারণে গতবার পৃষ্ঠপোষকদের কাছ থেকে সেভাবে সাড়া পায়নি। তবে সবার সার্বিক সহযোগিতায় খেলা চালিয়েছি। সামনের দিকেও আশা করছি সবার কাছ থেকে সহযোগিতা নিয়ে খেলাগুলো ঠিকঠাক মতো চালাতে পারবো।’ বাফুফের বাজেটের বড় অংশ ব্যয় হবে জাতীয় দল, প্রিমিয়ার লিগ ও জেলা ফুটবলের কার্যক্রমে। সংস্থাটির সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেছেন, ‘জাতীয় দল, প্রিমিয়ার ফুটবল ও জেলা ফুটবল- মূলত এই সব জায়গায় জোর দেওয়া হবে। যার যার জায়গায় জেলা লিগ হবে। আমরাও তাদের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছি।’
0 Share Comment
Dhaka Division
31 October 2021, 11:58

২৪ বছর বয়সে ২৩ সন্তানের মা, টার্গটে ১০৫

২৪ বছর বয়সে ২৩ সন্তানের মা, টার্গটে ১০৫
ক্রিস্টিনা আজটেক এই মুহূর্তে খবরের শিরোনামে৷ ২৪ বছরের এই সুন্দরী মাত্র এক বছরের মধ্যে হয়েছেন ২১ সন্তানের মা! ক্রিস্টিনার গর্ভে এখন পর্যন্ত ২ সন্তান জন্মেছে, ফলে এক ছাদের নিচে তাদের ২৩টি বাচ্চা একসাথে বড় হয়ে যাচ্ছে। তার কোটিপতি স্বামীর সাথে তিনি এতগুলো সন্তানের মাতৃত্ব বরণ করেছেন। এই মুহূর্তে তাই রাশিয়ার গণ্ডি ছাড়িয়ে তার মাতৃত্বের খবর সারা দুনিয়ার ভাইরাল নিউজ।

এই ২১ সন্তান সামলানোর জন্য তার ১৬ জন ন্যানি বা আয়া রয়েছে৷ ২১ সন্তানের জন্য তাদের কোটি কোটি ডলার খরচ করতে হয়েছে। কিন্তু তারা জানিয়েছেন, এভাবে অর্থব্যয় করে তারা সবচেয়ে আনন্দ পান।
২৪ বছর বয়সে ২৩ সন্তানের মা, টার্গটে ১০৫
ডেইলি মেইলে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ক্রিস্টিনা আজটেক জর্জিয়ার কোটিপতি গৈলপের স্ত্রী৷ এই কোটিপতি দম্পতি গত বছর মার্চ থেকে চলতি বছরের জুলাই মাস পর্যন্ত সারোগেসি করে মা-বাবা হয়েছেন। এর জন্য তারা ১,৪২,০০০ পাউন্ড অর্থাৎ বাংলাদেশী মুদ্রায় ১ কোটি ৬৬ লাখ ৪৫ হাজার টাকা খরচ করছেন।

রাশিয়ার ক্রিস্টিনা বাচ্চাদের দেখাশুনো করার জন্য ১৬ জন আয়া রেখেছেন৷ যারা ২৪ ঘণ্টাই ডিউটি করেন। এর জন্য তাদের ৯৬ হাজার ডলার অর্থাৎ ৭২ লাখ টাকারও বেশি খরচ হয়।
২৪ বছর বয়সে ২৩ সন্তানের মা, টার্গটে ১০৫!

ক্রিস্টিনার গর্ভে এখন পর্যন্ত ২ সন্তান জন্মেছে। আর সারোগেসির মাধ্যমে তারা আরো ২১ সন্তানের মা-বাবা হয়েছেন। ফলে এক ছাদের নিচে তাদের ২৩টি বাচ্চা একসাথে বড় হয়ে যাচ্ছে।

ক্রিস্টিনা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি তার প্রত্যেক সন্তানকে একইরকমভাবে দেখেন৷ তিনি সবসময়েই বাচ্চাদের সাথে থাকেন৷ সব মায়েরা যা করেন তিনিও তাই করেন। বাকিদের থেকে তার একটিই পার্থক্য। তা হলো, তার বাচ্চার সংখ্যা একটু বেশি। আর এ কারণে প্রতিটা দিন আলাদা হয়। রোজই তাকে স্টাফদের শিডিউল বানাতে হয়৷ পরিবারের সব কেনাকাটা তিনি নিজেই করেন।

ক্রিস্টিনা সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুণ অ্যাকটিভ। তিনি নিয়মিত সেখানে তার পারিবারিক আপডেট দিয়ে থাকেন। তার প্রোফাইলে লক্ষাধিক ফলোয়ার রয়েছে৷ তিনি সেখানে বাচ্চাদের খাবার বানাতে ও বাচ্চাদের সাথে খেলার ছবি পোস্ট করেন।
0 Share Comment
আরও খুজুন। এজন্য নিচের বক্সে লিখে এন্টার চাপুন অথবা সার্চ আইকনে ক্লিক করুন। Find out more. To do this, type in the box below and press Enter or click on the search icon.
$
$

Image Product Price
Buy Digital Thermometer 300.00 BDT each
+
Add to cart
Nova Electric Kettle 990.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Cloth Rack 3 layer 2 750.00 BDT each
+
Add to cart
Infrared Body Massager 1 000.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Electric Paint Zoom 2 850.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Table Pen Holder 520.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Hot Water Tap 2 250.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Electric Popcorn Maker 2 000.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Baby Nail Trimmer 1 450.00 BDT each
+
Add to cart
Yawgoo & Exercise Mat 650.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Hot Water Shower with free hand shower 1 320.00 BDT each
+
Add to cart
Buy water spray motor Car 1 550.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Prestige blender 4 100.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Baby Bouncer Chair 1 350.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Full Body Vibration Machine 18 500.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Old Man Walking Stick বৃদ্ধ মানুষের হাঁটার লাঠি 2 100.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Rechargeable Shaver 2 150.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Orbit Fruit & Vegetable Cutter 1 050.00 BDT each
+
Add to cart
Havit MX701 Alarm Clock And Fm Radio Wireless Speaker 1 200.00 BDT each 5 items in stock
+
Add to cart
Sony Hearing Aid Japan 3 000.00 BDT each
+
Add to cart
360 degree rotation Mobile Phone Accessories Cell Holder Sockets 400.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Furniture Easy Moving 1 500.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Paint Zoom 2 150.00 BDT each
+
Add to cart
Buy Wi-Fi Action IP Security 1 650.00 BDT each
+
Add to cart